ঢাকা,  শনিবার  ২২ জুন ২০২৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

মহাকাশ পাড়ি দিচ্ছেন প্রথম সৌদি নারী

প্রকাশিত: ১৩:৫৬, ২৬ মে ২০২৩

মহাকাশ পাড়ি দিচ্ছেন প্রথম সৌদি নারী

ফাইল ফটো

সৌদি আরব প্রথম নারী নভোচারী আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে পাঠিয়ে নতুন ইতিহাস গড়ছে। দেশটির স্তন ক্যান্সার বিষয়ের গবেষক রায়ানা বারনাবি স্পেস স্টেশনে সৌদি আরবের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছেন। তার সঙ্গে ফাইটার পাইলট হিসেবে যোগ দিচ্ছেন সাউদি আলি আল কারনি।

ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় রোববার বিকেল ৫টা ৩৭ মিনিটে রায়ানা বারনাবিকে বহন করে মহাকাশ যানের পাড়ি দেওয়ার কথা আকাশে। এর আয়োজন করেছে অ্যাক্সিওম স্পেস।

দ্য অ্যাক্সিওম মিশন ২ (এএক্স-২)-এর ক্রুরা স্পেসএক্স ফলকন ৯ রকেটের সাহায্যে কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে আকাশে উড়বেন। এ জন্য ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরালে আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। অভিযাত্রীদের এই টিমে আরো থাকছেন নাসার সাবেক নভোচারী পেগি হোয়াইটসন। তিনি চতুর্থবারের মতো আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে যাচ্ছেন। পাইলট হিসেবে দায়িত্বে থাকবেন টিনেসির ব্যবসায়ী জন শোফনার। আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে তাদের অবস্থান করার কথা ১০ দিন।

এই স্টেশনে তাদের পৌঁছার কথা সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টার দিকে। সম্প্রতি সংবাদ সম্মেলনে বারনাবি বলেছেন, প্রথম নারী সৌদি আরবের নভোচারী হতে পেরে, ওই অঞ্চলের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে খুব আনন্দ হচ্ছে। খুব সম্মানিত বোধ করছি। মহাকাশ স্টেশনে যাওয়া তার কাছে শুধু গবেষণার জন্য আনন্দের এমন না। একই সঙ্গে সেখানে যে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করবেন তা তিনি শিশুদের মধ্যে শেয়ার করতে চান।

অন্যদিকে আল কারনি একজন ফাইটার ক্যারিয়ার পাইলট। বলেছেন, সব সময়ই তার মধ্যে অজানাকে জানার কৌতুহল কাজ করে। বিশেষ করে আকাশ এবং গ্রহ নক্ষত্র। এই শখ পূরণ তার কাছে এক গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ বলে জানিয়েছেন।  এটা হতে যাচ্ছে সৌদি আরবের প্রথম মহাকাশ অভিযান। প্রিন্স সুলতান বিন সালমান বিন আবদুল আজিজ বিমান বাহিনীর একজন পাইলট হিসেবে ১৯৮৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত এক মহাকাশ অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু মহাকাশ অভিযানে প্রথম একজন সৌদি নারীর অংশ নেয়ার ঘটনা এটাই প্রথম।

জানা গেছে, ৪ জন মহাকাশচারীর এই দল ১০ দিনের মিশনে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে অন্তত ২০ রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাবেন, যার মধ্যে রয়েছে মাধ্যাকর্ষণ-বিহীন জায়গায় স্টেম সেলের আচরণ লক্ষ্য করা। আইএসএস-এতে রয়েছেন আরো ৭ জন মহাকাশচারী। ৩ জন রাশিয়ান, ৩ জন মার্কিন বাসিন্দা ছাড়াও সেই দলে রয়েছেন আরবের বাসিন্দা মহাকাশচারী সুলতান-আল-নেয়াদি। আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে তাদের সঙ্গেই সম্মিলিতভাবে মহাকাশ-গবেষণা শুরু করবেন রায়ানাহ-আল কার্নিও।