ঢাকা,  শনিবার  ২২ জুন ২০২৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

দাবদাহেও সুস্থ চুল

প্রকাশিত: ১২:৩৬, ২ জুন ২০২৩

দাবদাহেও সুস্থ চুল

প্রতীকী ছবি

বাড়ছে দাবদাহ। এর মধ্যে যান্ত্রিক শহরে বাড়তি ঝামেলা ধুলাবালি। কাজেই গরমের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কীভাবে আপনি চুল এবং ত্বক প্রাণবন্ত আর উজ্জ্বল রাখবেন সেই পরামর্শ দিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে লাইফস্টাইল বেজড অনলাইন স্টাইলক্রেজ। রইল বৃত্তান্ত-

গরমের পুরোটা সময় সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে চুলের রুক্ষতা। পাশাপাশি চুলপড়া, খুশকির সমস্যা তো আছেই। তাই চুলের চাই প্রতিদিনের যত্নআত্তি। বাইরের ধুলাবালির কারণে চুলের রুক্ষতার বিষয়টি সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে। এ ছাড়া এই সময়ে চুল আর্দ্রতাও হারায় খুব দ্রুত। তাই চুলের ক্ষেত্রে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার দিকে রাখতে হয় বাড়তি নজরদারি। প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু আর কন্ডিশনার ব্যবহার করা উচিত এ সময়ে। এতে চুল থাকবে পরিষ্কার আর সতেজ।

চুল বনাম আর্দ্রতা : চুলের ধরন যা-ই হোক না কেন, আর্দ্রতা চুলকে ফ্রিজি এবং শুষ্ক করে তোলে। সমস্যা সমাধানে চুল সব সময় তোয়ালে দিয়ে শুকিয়ে নিন। মোলায়েম এক মাইক্রোফাইবার তোয়ালে দিয়ে চুল মুছে নিন। এটি চুলকে দ্রুত শুকিয়ে যেতে দেবে না, ভাঙাও রোধ করবে। চুলে ব্লো ড্রাই করা এড়িয়ে চলুন। এটি চুলের প্রাকৃতিক আর্দ্রতা কমিয়ে দেয়। আর হ্যাঁ, চুলের যতেœ বোনাকিউর রেঞ্জ থেকে ফ্রিজ অ্যাওয়ে শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করতে পারেন। এটি ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত অ্যান্টি-ফ্রিজিং রাখবে এবং চুলকে করবে ঘন ও মোলায়েম।

ডিহাইড্রেশন দ্বিধা : এটা সত্য যে, গ্রীষ্মকাল মাথার ত্বককে ডিহাইড্রেট করে, যা চুলকে রুক্ষতার দিকে নিয়ে যায়। সমস্যার সমাধানে  ডায়েট চার্ট বদলে নিন। প্রোটিন এবং ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার যেমন- ডিম, সয়া, মুরগির মাংস, সার্ডিনস, টুনা মাছ ইত্যাদি বেশি বেশি খান। এগুলো চুলের ডিহাইড্রেশন দূর করবে এবং প্রাকৃতিকভাবে চুল হবে উজ্জ্বল। ময়েশ্চার শ্যাম্পু, স্প্রে কন্ডিশনার, কার্ল বাউন্স এবং হাইড্রেশন বাম চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে। পাশাপাশি চুলের স্ট্র্যান্ডগুলোকে নমনীয় করে তোলে।

দূষণের বিপদ : শহুরে ধুলাবালি চুলে দূষণের মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। সেনসিটিভ স্কাল্প সিনড্রোম, হেয়ার কিউটিকল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া, চুলপড়া এবং সবচেয়ে খারাপ অবস্থার সৃষ্টি করে। সমস্যার সমাধানে বাইরে বের হলে টুপি কিংবা স্কার্ফ ব্যবহার করুন। বোনাকিউরের ক্লিন ব্যালেন্স রেঞ্জের মতো দূষণবিরোধী প্রসাধনীর সঙ্গে আপনার চুলের শখ্য গড়ে তুলুন।  এসব প্রসাধনী ব্যবহারে চুল দূষণকারী পদার্থ, ধুলাবালি এবং ময়লা ইত্যাদি থেকে রক্ষা করে।

লেখা : সাদিয়া সারা