ঢাকা,  মঙ্গলবার  ১৮ জুন ২০২৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

অতুলপ্রসাদের সমাধিসৌধ সংস্কারের দাবি

প্রকাশিত: ০১:০৫, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

অতুলপ্রসাদের সমাধিসৌধ সংস্কারের দাবি

সংগৃহীত

‘মোদের গরব মোদের আশা, আ–মরি বাংলা ভাষা’সহ অনেক গানের রচয়িতা, বাংলা সাহিত্যের পঞ্চকবির একজন অতুলপ্রসাদ সেন। অথচ সই অতুলপ্রসাদের সমাধিসৌধ পড়ে আছে অযত্ন আর অবহেলায়। শুধু অতুলপ্রসাদ নয়, গাজীপুরের কাওরাইদেই রয়েছে জমিদার কালীনারায়ণ গুপ্তসহ তার স্বজনদের সমাধি।

এলাকার গর্ব এসব মানুষের সমাধি সংস্কার করে দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

বাঙালির ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধে ব্যাপক প্রেরণা জুগিয়েছিল ‘মোদের গরব মোদের আশা, আ–মরি বাংলা ভাষা’ গানটি। এই গানের স্রষ্টা বাংলার পঞ্চকবির একজন অতুল প্রসাদের সমাধিসৌধ গাজীপুরের শ্রীপুরের কাওরাইদ গ্রামে।

১৯৩৪ সালের ২৬ আগস্ট ভাওয়ালের জমিদার কালীনারায়ণ গুপ্তের কাছারি বাড়ি। কালীনারায়ণ গুপ্তের কন্যা হেমন্তশশীর ছেলে অতুলপ্রসাদ সেনের জন্ম ঢাকায়, ১৮৭১ সালে।

১৯৩৪ সালে ভারতের লক্ষ্ণৌতে মৃত্যুর পর সেখান থেকে চিতাভষ্ম এনে কাওরাইদে মায়ের সমাধির পাশে সমাহিত করা হয়। অনেকটা অযত্ন-অবহেলায় পড়ে আছে সেই সমাধি।

এলাকাবাসী অতুল প্রসাদের মতো গুণীর সমাধি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক জানান, বাংলা সাহিত্যের এই বরেণ্য পুরুষের সমাধিটি সংস্কার করে দর্শন উপযোগী করা হবে। এজন্যে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতেম মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, অতুল প্রসাদ বাংলা সাহিত্যের একজন বরেণ্য পুরুষ। তার সাহিত্যের কদর আছে। আমরা তার সমাধিটি যথাযথভাবে সংরক্ষণের ব্যবস্থা করবো।

শুধু অতুলপ্রসাদই না, কাওরাইদেই রয়েছে জমিদার কালীনারায়ণ গুপ্তসহ তার স্বজনদের সমাধি। এলাকার গর্ব এসব মানুষের সমাধি সংস্কারের দাবি গাজীপুরবাসীর।