সোমবার  ০৫ ডিসেম্বর ২০২২,   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৯,  ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

কবরবাসীরা কি সালামের জবাব দেন?

প্রকাশিত: ১৯:১০, ৩ অক্টোবর ২০২২

কবরবাসীরা কি সালামের জবাব দেন?

ছবি: সংগৃহীত

কবর জিয়ারত করলে হৃদয় বিনম্র হয়। মৃত্যুর কথা স্মরণ হয়। আখিরাতের প্রতি উৎসাহ পাওয়া যায়। গুনাহ ও অন্যায় থেকে তওবা করার মানসিকতা তৈরি হয়। সৎ-আমলের প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি হয়। কবর জিয়ারত রাসুল (সা.) সুন্নতও বটে।

আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) মদিনার কবরবাসীর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় এই দোয়া পাঠ করেন—

السَّلاَمُ عَلَيْكُمْ يَا أَهْلَ الْقُبُورِ يَغْفِرُ اللَّهُ لَنَا وَلَكُمْ أَنْتُمْ سَلَفُنَا وَنَحْنُ بِالأَثَرِ

বাংলা উচ্চারণ : আসসালামু আলাইকুম ইয়া আহলাল কুবুর; ইয়াগফিরুল্লাহু লানা ওয়ালাকুম, আনতুম সালাফুনা ওয়া নাহনু বিল আ-সার।

অর্থ : হে কবরবাসী! তোমাদের ওপর শান্তি বর্ষিত হোক। আল্লাহ আমাদের ও তোমাদের ক্ষমা করুন, তোমরা আমাদের আগে কবরে গিয়েছ এবং আমরা পরে আসছি। (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ১০৫৩)

অনেকেরই প্রশ্ন, কবরবাসীরা কি সালামের জবাব দিয়ে থাকেন? কবরের কোনো ব্যক্তি সালামের জবাব দেন না। রাসুল (সা.) বলেছেন, অতঃপর আল্লাহ আমার রুহকে ফেরত দেন। তখন আমি আমার সালামের উত্তর দেই। এই থেকে বুঝা যায়, এটি আল্লাহর ইচ্ছা। এটা রাসুল (সা.) এর ক্ষেত্রে। এখন আল্লাহ চাইলে কাউকে সুযোগ করে দিতে পারেন। কিন্তু সাধারণত কবরবাসী সালামের উত্তর দিতে পারেন না।