ব্রেকিং:
"করোনায় তিনজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১"
  • শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

মসজিদে বেচাকেনা ও হারানো বিজ্ঞপ্তি দেওয়া যাবে কি?

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০২১  

মসজিদ আল্লাহর ঘর। এ ঘর ইবাদত-বন্দেগির জন্য নির্ধারিত। ইবাদত-বন্দেগির বাইরে এখানে দুনিয়াবি কোনো কাজ করা ঠিক কিনা এ সম্পর্কে হাদিসের দিক নির্দেশনা রয়েছে। অনেক সময় মসজিদের মাইকে কিংবা নামাজের পরে হারানো বিজ্ঞপ্তি কিংবা ব্যবসা-বাণিজ্য সংশ্লিষ্ট দোয়া ও মিলাদ-মাহফিলের ঘোষণা দিতে শোনা যায়। মসজিদের ভেতরে এসব হারানো বিজ্ঞপ্তির ঘোষণা বা ব্যবসা-বাণিজ্য করা যাবে কী?

মসজিদের ভেতরে যদি কেউ হারানো বিজ্ঞপ্তির ঘোষণা দেয় কিংবা ব্যবসা-বাণিজ্য করে তবে তাতে বরকত ও কল্যাণ না হওয়ার ব্যাপারে হাদিসের দিকনির্দেশনা রয়েছে। এসব ক্ষেত্রে করণীয় কী? কী বলতে হবে? তাও বর্ণিত হয়েছে হাদিসে।

হারানো বিজ্ঞপ্তির ঘোষণা সম্পর্কে হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- যে ব্যক্তি শুনতে পায় যে, কেউ মসজিদের ভেতর হারানো বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা করছে, তখন সে যেন বলে-
لَا رَدَّهَا اللهُ عَلَيْكَ
উচ্চারণ : ‘লা রাদ্দাহাল্লাহু আলাইকা’
অর্থ : ‘আল্লাহ তোমাকে এটি ফিরিয়ে না দিক!’
কারণ মসজিদগুলো এ উদ্দেশ্যে বানানো হয়নি।’ (মুসলিম)

বেচা-কেনা ও হারানো বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে অন্য হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সল্লাম বলেছেন, ‘মসজিদের ভেতরে তোমরা কোনো লোককে বেচা-কেনা করতে দেখলে বলবে-
لاَ أَرْبَحَ اللَّهُ تِجَارَتَكَ
উচ্চারণ : ‘লা আরবাহাল্লাহু তিঝারাতাকা’
অর্থ : আল্লাহ তাআলা যেন তোমার ব্যবসায়ে কোন লাভ প্রদান না করেন।’
আর যখন তোমরা কোনো লোককে মসজিদের মধ্যে হারানো জিনিসের ঘোষণা দিতে দেখবে; তখন বলবে-
لاَ رَدَّ اللَّهُ عَلَيْكَ
উচ্চারণ : ‘লা রাদ্দাল্লাহু আলাইকা’
অর্থ : তোমার হারানো জিনিসকে যেন আল্লাহ তাআলা ফিরিয়ে না দেন।’ (তিরমিজি, মিশকাত)

ইসলামিক স্কলারগণ এই হাদিসের উপর আমল করার কথা বলেছেন। তাদের মতে মসজিদের ভেতরে বেচা-কেনা করা নিষেধ। এই মত দিয়েছেন ইমাম আহমাদ ও ইসহাক রাহমাতুল্লাহি আলাইহি। তবে মসজিদের ভিতরে বেচা-কেনা করার ব্যাপারে অন্য একদল বিশেষজ্ঞ আলিম বৈধ বলেছেন।

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত, মসজিদকে বেচা-কেনার উপলক্ষ্য না বানানো কিংবা হারানো বিজ্ঞপ্তি বা ঘোষণা না দেওয়া। বরং মসজিদ আল্লাহর ঘর, ইবাদত-বন্দেগির জন্য নির্ধারিত জায়গা হিসেবে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদা করাই উত্তম।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে মসজিদে হারানো বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা ও বেচা-কেনার ঘোষণা বা স্থান না বানানো থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা