বুধবার  ০৫ অক্টোবর ২০২২,   আশ্বিন ১৯ ১৪২৯,  ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

গাজীপুরে ট্রেন-বাস সংঘর্ষ : তদন্ত কমিটি গঠন

প্রকাশিত: ২৩:০৫, ২৪ জুলাই ২০২২

গাজীপুরে ট্রেন-বাস সংঘর্ষ : তদন্ত কমিটি গঠন

গাজীপুরের শ্রীপুরে বাস ও ট্রেনের সংঘর্ষে আহত একজনকে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের সঙ্গে পোশাক শ্রমিকদের বহনকারী একটি বাসের সংঘর্ষে চার জন নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে গাজীপুর জেলা প্রশাসন। উপজেলার বরমী ইউনিয়নের মাইঝপাড়া রেলক্রসিংয়ে আজ রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এ দুর্ঘটনায় নিহত তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন—গাজীপুরের শ্রীপুর থানার বালিয়াপাড়া এলাকার জুনায়েদের স্ত্রী পোশাকশ্রমিক প্রিয়া বেগম (২৬) এবং ময়মনসিংহের ত্রিশাল থানার চর মাধাখালি (নতুন চর) এলাকার মৃত শামাল উদ্দিনের ছেলে ইলিয়াস উদ্দিন (৩৫) এবং বাসের চালক তাজুল ইসলাম (৩০)। নিহত অপর ৩০ বছরের অজ্ঞাত পুরুষের পরিচয় পাওয়া যায়নি। 

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেওয়া আহতরা হলেন—নিলুফা (৪১), জাহিদ (২৪), আরমান (১৭), নাঈম (১৯), পারভেজ(৩৪), মাসুম (১৮), ফারজানা (২০), বেবী (৪০), রেশমী (৩০), বিল্লাল (২০), হালিমা (২৪), মাহফুজ (২৫), শিপন (১৭), হাবিবুল্লাহ (১৬) ও সুলেমা (১৯)।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান, শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান ও শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের খোঁজ খবর নেন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান জানান, দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। দুর্ঘটনা তদন্তের জন্য গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জন কুমার সরকারকে আহ্বায়ক করে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি অন্য দুই সদস্য হলেন শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম এবং শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান। কমিটিকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেককের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা এবং আহতদেরকে চিকিৎসার জন্য ১০ হাজার টাকা করে সহায়তা দেওয়া হয়েছে।