• রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৮

  • || ১২ সফর ১৪৪৩

কালীগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর আবদার মেটাতে গিয়ে স্বামীর মৃত্যু

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৯ আগস্ট ২০২১  

গাজীপুরের কালীগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ঝালমুড়ি খাওয়ার আবদার জানান। ঝালমুড়ি কিনতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মৃত্যু হয়েছে স্বামী কিরণ চন্দ্র মণ্ডলের। এ সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে অটোচালক আবুল কাশেম এবং তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র বিশ্বাস মণ্ডল গুরুতর আহত হন।
শুক্রবার রাতে উপজেলার মোক্তারপুর ইউনিয়নের ধনপুর পূর্বপাড়া বুডারবাড়ি সংলগ্ন মুক্তিযোদ্ধা বীরেন্দ্র চন্দ্র মণ্ডলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত কিরণ চন্দ্র মণ্ডল (৩০) উপজেলার ধনপুর গ্রামের মৃত অধর চন্দ্র মণ্ডলের ছেলে। তিনি পেশায় একজন (রাজ জোগালি) নির্মাণ শ্রমিক ছিলেন।
নিহতের পরিবার জানায়, গত কয়েক মাস আগে কিরণ চন্দ্র কিশোরগঞ্জের রিতা রানী মণ্ডলকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন। তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ঝালমুড়ি খেতে চান। শুক্রবার সন্ধ্যায় নববধূর জন্য ঝালমুড়ি আনতে দোকানে যাওয়ার সময় অটোরিকশায় বিদ্যুতায়িত হন তিনি।
এ সময় শিশু শিক্ষার্থী বিশ্বাস তার চাচাকে অটোরিকশায় আটকে থাকতে দেখতে গিয়ে সেও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। পরে স্থানীয়দের ডাকাডাকি করলে প্রতিবেশী আবুল কাশেম এগিয়ে এসে কিরণ মণ্ডলকে অটোরিকশার সঙ্গে বিদ্যুতায়িত হতে দেখে গাছের ডালা দিয়ে আঘাত করলে উভয়ে ছিটকে পড়ে। পরে তার চিৎকারে বাড়ির লোকজন এসে ঘরের মিটারের মেইন সুইচ বন্ধ করে তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। এর কিছুক্ষণ পরই কিরণ মণ্ডল মারা যান।
এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ওসি আনিসুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে নিহতের পরিবারের কোনো আপত্তি না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে নিহতের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা