সোমবার  ০৫ ডিসেম্বর ২০২২,   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৯,  ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

বাইকারদের জন্য মাথা নষ্ট করা টিপস!

প্রকাশিত: ১৬:৪০, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

বাইকারদের জন্য মাথা নষ্ট করা টিপস!

বাইকারদের জন্য মাথা নষ্ট করা টিপস

বাইকারদের কাছে বাইকের চেয়ে যেন প্রিয় কিছু নেই। সাধের বাইক নিয়ে ঘুরে বেড়াতে পছন্দ করেন বিভিন্ন জায়গায়। তবে বাইক ব্যবহারের কারণে কিছুদিন পরপর বাইক ওয়াশ করার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু কাজের চাপে বা সময়ের অভাবে অনেকেই মেকানিকস/সার্ভিসিং সেন্টার থেকে বাইক ওয়াশ করিয়ে আনতে পারেন না।

সঠিক সময়ে বা নির্দিষ্ট সময় পরপর ওয়াশ না করলে বাইকে ময়লা জমার সুযোগ পায়, যা থেকে পরবর্তী সময়ে মরিচা পড়ার আশঙ্কা থাকে। এতে বাইকটি দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। 

তা ছাড়া নির্দিষ্ট সময় পরপর বাইক  মেকানিকস/সার্ভিসিং সেন্টার থেকে ওয়াশ করাটা অনেকটাই ব্যয়বহুল। তাই ঝামেলা এবং খরচ থেকে বাঁচতে চাইলে নিজেই নিজের বাইক পরিষ্কার করে নিতে পারেন।

সহজেই নিজের বাইক পরিষ্কার করতে আপনার লাগবে কম ক্ষারযুক্ত শ্যাম্পুর মিনি প্যাক ৩টি, কিছু নরম সুতির কাপড়, টুথব্রাশ, ব্রাশ, সামান্য মবিল, হ্যান্ড শাওয়ারসহ পানির পাইপ অথবা একটি বালতি ও মগ।

হাতের কাছে এসব জিনিস থাকলে সহজেই শুরু করে দিতে পারেন বাইক ধোয়ার কাজ। এর জন্য যা করবেন–

১. বাইকটি ধোয়ার আগে নিশ্চিত করুন ইঞ্জিন ঠান্ডা কিনা! গরম ইঞ্জিনে কখনোই বাইক ধোয়া যাবে না।

২. ঢালু জায়গা নির্বাচন করুন। বাইকের চাবি সরিয়ে ফেলুন। এরপর বাইকটি সেখানে ডাবল স্ট্যান্ড করে দাঁড় করান।

৩. পানি দিয়ে পুরো বাইকটি ভিজিয়ে নেয়ার পর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে প্রয়োজনীয় ব্রাশ দিয়ে ময়লা স্থানগুলোতে ঘষতে শুরু করুন।

৪. এবার একটি মগে শ্যাম্পুগুলো দিয়ে কিছু পানি দিয়ে ফেনা তৈরি করুন। এবার নরম কাপড় দিয়ে পুরো বাইকটি শ্যাম্পুর পানি দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করার কাজে লেগে যান।

৫. নরম কাপড় দিয়ে পুরো বাইক হালকা ঘষে পরিষ্কার করুন। এ ক্ষেত্রে ইঞ্জিন, টায়ার, মাডগার্ড এরিয়াগুলোতে ব্রাশের সাহায্য নিন।

৬. ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে পুরো বাইকটি ধুয়ে ফেলতে পারেন। পানি ঝরে যাওয়ার পর একটি সুতি কাপড় দিয়ে পুরো বাইকটি মুছে ফেলুন।

৭. পানি শুকিয়ে গেলে চেইনে সামান্য মবিল দিন। এরপর বাইকটি স্টার্ট দিয়ে ৫ মিনিট ইঞ্জিন চালু রাখুন। এর ২০ মিনিট পর বাইক নিয়ে বেরিয়ে পড়তে পারেন আপনার নির্দিষ্ট গন্তব্যে।