শনিবার  ২০ আগস্ট ২০২২,   ভাদ্র ৪ ১৪২৯,  ২২ মুহররম ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

হাত-পা ঠান্ডা থাকা যে ৫ রোগের লক্ষণ

প্রকাশিত: ০৮:৫২, ২ জানুয়ারি ২০২২

হাত-পা ঠান্ডা থাকা যে ৫ রোগের লক্ষণ

শীতে স্বাভাবিকভাবে হাত-পা খোলা থাকলে তা ঠান্ডা থাকা সাধারণ বিষয়। তবে হাত-পা ঢেকে রাখার পরেও যদি ঠান্ডা লাগে কিংবা সহজে গরম না হয়, তাহলে নিশ্চয়ই শারীরিক কোনো সমস্যার লক্ষণ হতে পারে এটি। এমন সমস্যার কারণে ঠান্ডায় হাত-পা অবশ হওয়ার উপক্রম ঘটে।

শীতে হাত-পা ঠান্ডা হতে পারে, তাই বলে এতোটাও ঠান্ডা হবে না যে অবশ বোধ করবেন। তাই বিশেষজ্ঞরা এই ধরনের সমস্যা নিয়ে প্রথম থেকেই সতর্ক করছেন। কারণ এই লক্ষণ হতে পারে মারাত্মক কয়েকটি রোগের। জেনে নিন হাত-পা ঠান্ডা থাকা হতে পারে যে ৫ রোগের লক্ষণ-

হাইপোথাইরয়েডিজম

থাইরয়েড হলো শরীরে শক্তির ভারসাম্য রক্ষাকারী গ্রন্থি। হাইপোথাইরয়েডিজমের ক্ষেত্রে এই গ্ল্যান্ডে দেখা দেয় সমস্যা। তখন থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে সঠিক পরিমাণে থাইরয়েড হরমোন বের হয় না।

ফলে শরীরে দেখা দেয় হরমোনের ভারসাম্যহীনতা। এ রোগে আক্রান্ত রোগীরও শরীর গরম রাখতে সমস্যা হয়। তাই হাত-পা প্রায়ই ঠান্ডা থাকতে পারে। বেশি সমস্যা হলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

রেনৌডস ডিজিজ

আপনার যদি হাইপোথাইরয়েডিজমের সমস্যা না হয় সেক্ষেত্রে হতে পারে রনৌডস ডিজিজ। এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির হাত,পায়ের ছোটছোট রক্তনালী বন্ধ হয়ে যায়। ফলে গরম রক্ত সেই হাত, পায়ে পৌঁছাতে পারে না। ফলে হাত, পা ঠান্ডা থাকে।

ডায়াবেটিস

আপনার সুগার নিয়ন্ত্রণে না থাকলেও দেখা দিতে পারে এই সমস্যা। এক্ষেত্রে অনিয়ন্ত্রিত সুগার থেকে মানুষ আক্রান্ত হতে পারেন পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথিতে।

ফলে পায়ের স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হয় ও আপনাকে সমস্যায় ফেলতে পারে। এ ছাড়াও ডায়াবেটিস থেকেও দেখা দিতে পারে পেরিফেরাল আর্টারি ডিজিজ। এই রোগে আক্রান্ত হলে রক্তনালীর অন্দরে রক্তপ্রবাহে দেখা দেয় সমস্যা।

দুশ্চিন্তা

অবাক করা বিষয় হলেও সত্যিই যে, হাত-পা ঠান্ডা থাকার কারণ হতে পারে মানসিক দুশ্চিন্তাও। এক্ষেত্রে দুশ্চিন্তা, উৎকণ্ঠা শরীরে এপিনেফ্রিন হরমোনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে শরীরে দেখা দেয় সমস্যা। তখন হাত-পায়ে রক্তপ্রবাহ কমে।

হাই কোলেস্টেরল

ভালো কোলেস্টেরল যেমন শরীরের জন্য অনেক উপকারী, ঠিক তেমনই খারাপ কোলেস্টরল হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়। কোলেস্টেরল রক্তনালীর ভেতরে জমলে দেখা দিতে পারে মারাত্মক সমস্যা। তখন হাত-পায়ে ঠান্ডা লাগতে পারে।

কীভাবে গরম থাকবেন?

শীতে পানি খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দেন সবাই। যা পানিশূন্যতার কারণ হতে পারে। যার কারণে কিডনিও বিকল হতে পারে। তাই প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। শরীর হাইড্রেট রাখতে পারলে এই সমস্যা এনেকটাই দূর হয়। শরীরে পানির জোগান থাকলে তা আপনার রক্তকে তরল করে দিতে পারবে। ফলে রক্তপ্রবাহ সঠিকভাবে হবে। তাই হাত-পা হবে গরম। এ ছাড়াও হাত-পা ঠান্ডা থাকার কারণ জানতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

গাজীপুর কথা