বুধবার  ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩,   মাঘ ২৬ ১৪২৯,  ১৭ রজব ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

স্ট্যাটাস মুছে ফেলে ফারিণের দুঃখ প্রকাশ

প্রকাশিত: ২১:১৮, ৪ ডিসেম্বর ২০২২

স্ট্যাটাস মুছে ফেলে ফারিণের দুঃখ প্রকাশ

স্ট্যাটাস মুছে ফেলে ফারিণের দুঃখ প্রকাশ

শুক্রবার রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কে গিয়ে আহত হন ছোট পর্দার তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। শনিবার সন্ধ্যায় দিকে সেই ঘটনার বিস্তর বর্ণনা দিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস দিয়ে জানান, অল্পের জন্যে প্রাণে বেঁচেছেন। আর এটিকে কোনোভাবেই দুর্ঘটনা বলতে নারাজ এই অভিনেত্রী। তার মতে, সেটি যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষের গাফিলতি।

রোববার দুপুরে ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে আরেকটি স্ট্যাটাসে সেই ফারিণ জানিয়েছেন, একজন কর্মকর্তার জন্য পুরো প্রতিষ্ঠানকে দোষারোপ করাটা ঠিক না এবং এ ব্যাপারে হয়তো তার আরেকটু বোঝার প্রয়োজন ছিল।

ফারিণ লেখেন, সেজন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। লেখায় তিনি এ-ও জানিয়েছেন, শনিবার দেয়া সেই স্ট্যাটাস পেজ থেকে মুছে ফেলেছেন অভিনেত্রী।

রোববার লেখা স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে দেয়া হলো-

একটা ঘটনা ঘটলে সে ঘটনার পেছনেও অনেক ঘটনা ও কারণ থাকে। তাৎক্ষনিকভাবে হয়তো সবটা উপলব্ধি করা সম্ভব হয় না, তবে পরবর্তীতে অনেক কিছু খোলাসা হয়।

আমার পূর্ববর্তী স্ট্যাটাস আমি ডিলিট করে দিয়েছি, কারণ সেটা শুধুমাত্র গতকাল (শনিবার) পর্যন্ত হয়ে যাওয়া ঘটনা নিয়ে আমার ভাষ্য ছিল এবং দূর্ঘটনা হওয়ার পরবর্তী ঘটনাগুলোর আরেকটা দিক আমার স্ট্যাটাসের পর সামনে এসেছে।

ঘটনা পরবর্তী যেসব কার্যক্রম নিয়ে আমার অভিযোগ ছিল তার বেশিরভাগই তৃতীয় পক্ষ দ্বারা সংগটিত। মধ্যম ব্যক্তি আমাদেরকে এসে একটা কথা বলেছেন এবং ম্যানেজমেন্টকে আমাদের নামে বানিয়ে মিথ্যা কথা বলেছেন।

শুক্রবার হওয়ার কারণে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সবাই ছুটিতে ছিলেন এবং সদ্য চলতি মাসে জয়েন করা সে কর্মচারীর কারণে এ বিস্তর ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয় যা ঐ কর্মকর্তার পাঠানো হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজগুলো দেখে আরো পরিষ্কার বুঝতে পারি।

গত রাতে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্তদের সঙ্গে কথা বলে আমার ভালো লেগেছে। একজন কর্মকর্তার জন্য পুরো প্রতিষ্ঠানকে দোষারোপ করাটা ঠিক না এবং এ ব্যাপারে হয়তো আমার আরেকটু বোঝার প্রয়োজন ছিল। সেজন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।

ধন্যবাদ যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি এত গুরুত্ব সহকারে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। ধন্যবাদ আমার বাসায় এসে সে সব ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটানোর জন্য। আসলে আমার জন্য ব্যক্তিগত সম্মানের জায়গাটা অনেক বড়। সেটা নিশ্চিত করতে আপনারা যা করেছেন তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। যমুনা ফিউচার পার্কে আমি সহ অনেকেই নিয়মিত শপিং করতে যাই।

আশা রাখছি যেসব জায়গায় কমতি রয়েছে সেগুলোর সমাধান করে ক্রেতাদের একটি নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করবে কর্তৃপক্ষ।