শনিবার  ২৫ জুন ২০২২,   আষাঢ় ১১ ১৪২৯

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

বাগেরহাটে ১৭শ’ পিস ইয়াবাসহ দুই নারী আটক

প্রকাশিত: ০৪:৩৭, ২০ মে ২০২২

বাগেরহাটে ১৭শ’ পিস ইয়াবাসহ দুই নারী আটক

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৭শ’ পিস ইয়াবাসহ দুই নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিউলী বেগমকে ৫শ’ পিস এবং মাহিমা আক্তার মৌকে ১২শ’ পিসসহ আটক করা হয়। তারা উভয়ই ইয়াবা কারবারের সঙ্গে জড়িত।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে থানা সংলগ্ন ফেরিঘাটে বলেশ্বর পরিবহন থেকে নামামাত্র পুলিশ শিউলী বেগমকে (৫২) ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। সে নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের গুলিয়াখালী গ্রামের মৃত জালাল শেখের স্ত্রী।

গ্রেফতার হওয়া শিউলী বেগম বলেন, তিনি দশ হাজার টাকার বিনিময়ে ৫শ’ পিস ইয়াবা ফেনী থেকে নিয়ে রওয়ানা হন। যা মোরেলগঞ্জের কেয়ার বাজার এলাকায় পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল।

এ বিষয়ে থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, ফেনী থেকে মাদকের একটি চালান নিয়ে এক বৃদ্ধ নারী মোরেলগঞ্জে আসছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম থেকে শরণখোর উদ্দেশে ছেড়ে আসা বলেশ্বর পরিবহনটি থামিয়ে তল্লাশী করা হয়। এ সময় শিউলী বেগম গাড়ি থেকে নেমে পালানোর চেষ্টা করলে তাকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়। 

এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে, বুধবার (১৮ মে) মোরেলগঞ্জ পৌরসভার আদর্শ পাড়া এলাকার ইব্রাহিম ফরাজীর বাড়িতে থেকে এক নারীকে আটক করা হয়। পরে তল্লাসী করে ১২শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইব্রাহিম ফরাজী পালিয়ে যান। 

আটক মাহিমা আক্তার মৌ (২৫) শরণখোলা উপজেলার রাজৈর গ্রামের কালাম শিকদারের মেয়ে। পলাতক ইব্রাহীম ফরাজী আদর্শ পাড়ার কাদের ফরাজীর ছেলে। 

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ইয়াবাসহ র‌্যাবের হাতে আটক হওয়ায় ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয় ইব্রাহীমকে।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো সাইদুর রহমান বলেন, ইব্রাহীম ফরাজী ও মাহিমা আক্তার মৌ চট্টগ্রাম থেকে ইয়াবা এনে এলাকায় পাইকারি ও খুচরা বিক্রি করে থাকেন। এর আগেও তাদের বিরুদ্ধে ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের অভিযোগ রয়েছে। 

এ ঘটনায় ইব্রাহীম ফরাজী ও মাহিমা আক্তার মৌ’র নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গাজীপুর কথা