ঢাকা,  সোমবার  ২২ জুলাই ২০২৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

বাদাম তুলতে গিয়ে রাসেলস ভাইপারের দংশন, সাপ নিয়ে হাসপাতালে কৃষক

প্রকাশিত: ২৩:২৯, ২১ জুন ২০২৪

বাদাম তুলতে গিয়ে রাসেলস ভাইপারের দংশন, সাপ নিয়ে হাসপাতালে কৃষক

সংগৃহিত ছবি

রাজবাড়ীর পাংশায় পদ্মা নদীর চরে বাদাম তুলতে গিয়ে রাসেলস ভাইপার সাপের দংশনে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মধু বিশ্বাস (৫০) নামে এক কৃষক। শুক্রবার (২১ জুন) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার চর আফড়া এলাকায় পদ্মা নদীর চরে বাদাম তুলতে গিয়ে রাসেলস ভাইপার সাপ তাকে দংশন করে।

রাসেলস ভাইপারের দংশনের শিকার কৃষক মধু বিশ্বাস পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চরআফড়া গ্রামের মৃত আক্কেল বিশ্বাসের ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কৃষক মধু বিশ্বাস বলেন, সকালে পদ্মা নদীর চরআফড়া এলাকার চর থেকে বাদাম তোলার সময় রাসেলসু ভাইপার সাপে দংশন করে। চিৎকার করলে লোকজন এগিয়ে এসে সাপটি মেরে ফেলে। পরে সাপসহ পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এলে সাপটি রাসেলস ভাইপার বলে শনাক্ত করেন চিকিৎসক।

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শারমিন আহম্মেদ তিথি বলেন, রাসেলস ভাইপার সাপের দংশনে এক কৃষক হাসপাতালে এসেছে। তাকে অ্যান্টিভেনম দেওয়া হয়েছে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রেফার্ড করা হয়েছে।

হাবাসপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আল মামুন খান বলেন, আমার ইউনিয়নের কৃষক মধু বিশ্বাসকে রাসেলস ভাইপার নামক সাপে কামড় দিয়েছে। তার অবস্থা এখন বেশি ভালো না। তাকে ফরিদপুর পাঠানো হয়েছে।

পাংশা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরী বলেন, রাসেলস ভাইপার নামক সাপের কামড়ে এক কৃষক অসুস্থ আছেন। আমরা তার সার্বক্ষণিক খোঁজ রাখছি।