ঢাকা,  সোমবার  ২২ জুলাই ২০২৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

রাত ৮টার মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করবে ডিএনসিসি

প্রকাশিত: ১৯:৫৭, ১৭ জুন ২০২৪

রাত ৮টার মধ্যেই কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করবে ডিএনসিসি

সংগৃহিত ছবি

কোরবানির বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। সোমবার (১৭ জুন) দুপুর ২টায় ডিএনসিসির ৭নং ওয়ার্ডের মিরপুর সেকশন-২ ব্লক-এইচ রোড নম্বর ৬ এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন তিনি।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আমরা ৩নং ওয়ার্ডে একটি নির্দিষ্ট স্থানে এবং ৭নং ওয়ার্ডে ৪টি নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানির উদ্যোগ নিয়েছিলাম। সবাই একসাথে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় কোরবানি দিলে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমটা অনেক সহজ হয়। ৭নং ওয়ার্ডের ৪টি নির্দিষ্ট স্থানে ১২০০ পশু কোরবানি দেওয়া হয়েছে। এক সঙ্গে এতোগুলো পশু কোরবানি দেওয়ায় পরিচ্ছন্নতার কাজটা দ্রুত করা সম্ভব হচ্ছে। যে ওয়ার্ডে নির্দিষ্ট স্থানে বেশি সংখ্যক পশু কোরবানি দেবে সেই ওয়ার্ডে বরাদ্দ বাড়িয়ে দেব।

মেয়র বলেন, রাত ৮টার মধ্যে নির্ধারিত কোরবানির বর্জ্য অপসারণে ডিএনসিসির ১০ হাজারের অধিক পরিচ্ছন্নতা কর্মী কাজ করছে। সকল কাউন্সিলর এবং ডিএনসিসির সকল কর্মকর্তা মাঠে রয়েছে। আমি নিজে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে পরিদর্শন করব। নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ আমাদের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সহযোগিতা করুন। হট লাইন নম্বর ১৬১০৬ এ ফোন করে বর্জ্যের বিষয়ে তথ্য জানাবেন। কন্ট্রোল রুম থেকে ব্যবস্থা নেবে।

মেয়র বলেন, এখন অনেক গরম, আবার বৃষ্টিও হচ্ছে। এই সময়ে এডিসের লার্ভা জন্মায়। তাই সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। অনেকে আজকে কালকেও বাড়িতে যাবেন বাড়ি যাওয়ার আগে বাসা বাড়ির ছাদ, বারান্দা, বাথরুম এগুলো পরিষ্কার করে যাবেন। কোথাও পানি জমে এডিসের লার্ভা জন্মাতে পারে এমন পাত্র উল্টিয়ে রাখবেন। 

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসির প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগে. জেনা. মো. মঈন উদ্দিন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগে. জেনা. ইমরুল কায়েস চৌধুরী, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ফিদা হাসান, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. তফাজ্জল হোসেন (টেনু) প্রমুখ।