ব্রেকিং:
"করোনায় তিনজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১"
  • শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে হা-হুতাশ করে পাকিস্তান

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২১  

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা না করলে ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হতো বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিশেষ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।
বিশেষ আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। আগের দিন বুধবার এই আলোচনাটির প্রস্তাব উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অত্যন্ত শ্রদ্ধাভরে আমরা স্মরণ করছি নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে। তিনি বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব ছিলেন। কিন্তু তাকেও দিল্লির সম্রাটকে কর দিতে হতো। তিনি বাঙালি ছিলেন না। একমাত্র বঙ্গবন্ধুই বাংলাদেশকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছিলেন। তিনি ছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপ্রধান। পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পরপরই বাংলাদেশ স্বাধীন করার পরিকল্পনা ছিল বঙ্গবন্ধুর। তিনি যখন ’৫১ সালে কারাগারে তখন কমিউনিস্ট পার্টির প্রধান নেতা কমরেড মণি সিংহের কাছে চিঠি লিখেছিলেন। চিঠিতে বলেছিলেন, আমি বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে চাই, আপনারা আমার সঙ্গে আছেন কি-না, না থাকলে আমি একাই এগিয়ে যাবো।
স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর দেশ গঠনের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পরপর বাংলাদেশ পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে যায়। ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নয় দশমিক ৫৯ শতাংশে পৌঁছায়। আজ পর্যন্ত আমরা প্রবৃদ্ধিতে ওই পর্যায়ে যেতে পারিনি। এটা যদি অব্যাহত থাকতো এবং বঙ্গবন্ধুকে যদি হত্যা করা না হতো—তাহলে ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হতো।
ড. হাছান বলেন, আজ সব কিছুতে পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ রচনার সফলতা এখানেই। আজ পাকিস্তান বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে হা-হুতাশ করে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেন মুজিববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে যে চিঠি লিখেছিলেন তাতে তিনি বাংলাদেশকে ‘উন্নয়নের উদাহরণ’ হিসেবে উল্লেখ করেন।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা