• শুক্রবার   ২২ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৭ ১৪২৮

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চাঞ্চল্যকর রাজু হত্যা মামলা: ৫ জনের ফাঁসি

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২১  

প্রায় ১১ বছর আগে রাজশাহী মহানগরের নিউমার্কেট এলাকায় চাঞ্চল্যকর রাজু হত্যা মামলার রায়ে ৫ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল। মামলার ১৫ আসামির মধ্যে ১ জন মারা গেছেন। বাকি ৯ জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে মামলার বিচারক অনুপ কুমার এই আদেশ দেন।
মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হচ্ছেন— মামুনুর রশীদ রেন্টু, আজিজুর রহমান রাজন, সাজ্জাদ হোসেন সাজু, ইসমাইল হোসেন ও রিন্টু ওরফে বয়া।
২০১০ সালের ১৫ মার্চ রাতে শহরের নিউ মার্কেট এলাকায় ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র রাজু আহম্মেদ নিহত হন।
রাজু রাজশাহীর দুর্গাপুরের দাওকান্দি ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি বাগমারা উপজেলার হাসনিপুর গ্রামে। তিনি শহরের মন্নাফের মোড় এলাকায় বন্ধুর সঙ্গে মেসে থাকতেন।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন সন্ধ্যার পর রাজু তার কম্পিউটার ঠিক করতে নিউমার্কেটে আসেন। নিউ মার্কেটের পশ্চিম প্রান্তে 'ভাই ভাই হোটেল'র পেছনে আসলে প্রথমে তাকে অপহরণের চেষ্টা করা হয়। এরপর রিন্টু ওরফে বয়া তার মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করেন। সাজু ও রাজন রাজুর বুকে-পিঠে ছুরি চালান।
গুরুতর আহত রাজুকে স্থানীয়রা দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সোয়া ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এজাহারে আরও বলা হয়েছে, বাগমারা উপজেলার মাদারিগঞ্জ বাজার এলাকায় রাজুর একটা মোবাইল সার্ভিসিংয়ের দোকান ছিল। ফাঁসির দণ্ড পাওয়া মামুনুর রশীদ রেন্টু বাড়িও সেখানে। রেন্টুর বন্ধু মুক্তার সঙ্গে রাজুর জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। বিরোধের জের ধরে একবার রাজুর দোকানে ভাঙচুর চালানো হয়। এ ছাড়া, ৫০ হাজার টাকা চাঁদাও দাবি করা হয়।
এর পরিপ্রেক্ষিতে রাজু মামলা করলে আসামিরা মামলা তুলে নেওয়ার চাপ দিতে থাকে। রাজু মামলা না তুললে তার ওপর হামলা চালায় তারা।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা