রোববার  ১৪ আগস্ট ২০২২,   শ্রাবণ ৩০ ১৪২৯,  ১৬ মুহররম ১৪৪৪

Gazipur Kotha | গাজীপুর কথা

গাজীপুরে ওয়ার্ড সচিবকে মারধর, গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত: ১৪:৪৫, ১ ডিসেম্বর ২০২১

গাজীপুরে ওয়ার্ড সচিবকে মারধর, গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি

গাজীপুরে হাতুড়ি পেটায় গুরুতর আহত হয়েছেন সিটি কর্পোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারী ও ওয়ার্ড সচিব কল্যান পরিষদের সভাপতি আনোয়ার করিম জুয়েল। 
বুধবার মহানগরীর মৈরান ব্রীজের কাছে হামলার এ ঘটনা ঘটে। তিনি গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডের সচিব ছিলেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে স্থানীয় বোর্ড বাজার সুলতান হাসপাতালে পরে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।
আহত আনোয়ার করিম ও স্বজনরা জানান, বুধবার সকালে মোটরসাইকেলযোগে নিজ কার্যালয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। পথে মৈরান ব্রীজের কাছে পৌছলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা ৮/১০জন লোক তার পথরোধ করে হামলা চালায়। এসময় তারা আনোয়ারকে মারধর করতে থাকে। একপর্যায়ে হামলাকারীরা হাতুড়ি, লোহার রড ও ইট দিয়ে আঘাত করতে থাকে।
এতে তার পায়ের হাড় ভেঙ্গে যায় এবং শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম হয় ও থেঁতলে যায়। এসময় আশেপাশে থাকা অর্ধশতাধিক লোক ঘটনা প্রত্যক্ষ করলেও কেউ ভয়ে এগিয়ে আসে নি। হামলাকারীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার পর স্থানীয়রা গুরুতর আহতাব্স্থায় তাকে উদ্ধার করে একটি ট্রাকে উঠিয়ে বোর্ড বাজার সুলতান হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।
জিএমপি’র গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, হামলা ও মারধরের ঘটনা শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ নিয়ে কেউ আসেন নি।
এলাকাবাসী জানান, গাজীপুর সিটির মেয়রের পদে জাহাঙ্গীর আলম থাকাকালে ওয়ার্ড সচিব আনোয়ার করিম নানা কারনে বেশ আলোচিত ও সমালোচিত ছিলেন। তিনি জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষ নিয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন পোস্ট দিতেন এবং প্রতিপক্ষদের কটাক্ষ করে তাদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের সমালোচনা করতেন।
সর্বশেষ প্রায় ১৫ দিন ধরে জাহাঙ্গীর আলমের উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রচারণা চালাতেন। এতে তার উপর ক্ষিপ্ত হয় জাহাঙ্গীর আলমের প্রতিপক্ষরা। জাহাঙ্গীর আলম সিটি মেয়রের পদ হারাবার পর প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৩৬ নং ওয়ার্ড সচিব আনোয়ারুল করিম জুয়েল।

গাজীপুর কথা