• শুক্রবার   ২০ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৬ ১৪২৯

  • || ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩

গাজীপুর কথা

উপকূলজুড়ে অসময়ে বৃষ্টি, শঙ্কায় চাষিরা

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২২  

পটুয়াখালীর গোটা উপকূলজুড়ে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সঙ্গে বইছে মৃদু হাওয়া। রোববার মধ্যরাত থেকে হালকা বাতাসের সঙ্গে এমন বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। একই সঙ্গে মেঘাচ্ছন্ন আকাশে গত দুদিন ধরে সূর্যের দেখা পাইনি উপকূলবাসী। 

সূর্য না ওঠায় কন কনে ঠান্ডার প্রভাবে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না অনেকেই। একদিকে করোনার প্রকোপ, অন্যদিকে বৈরি আবহাওয়া চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন খেটে খাওয়া  নিম্ন আয়ের মানুষ। 

এদিকে অসময়ে বৃষ্টির শঙ্কায় চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন মৌসুমি চাষিসহ তরমুজ চাষিরা। তবে আবহাওয়া অফিস সূত্র বলছে আরো তিনদিন থাকতে পারে এমন বৃষ্টির শঙ্কা। 

লতাচাপলী ইউপির তরমুজ চাষি ইউনুচ মিয়া বলেন, ৩৮ শতক জমিতে তরমুজের আবাদ করেছি। রোববার রাতে বৃষ্টির ফলে বেশকিছু মাদায় চারা লেপটে গেছে। এখন যদি ভারি বৃষ্টি হয় তাহলে ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। 

নীলগঞ্জ ইউপির চাষি জাকির হোসেন জানান, আমরা সৃজনশীল চাষি। বারোমাসই আমরা সবজি উৎপাদন করে থাকি। তবে আবহাওয়ার যে অবস্থা তাতে এখন বৃষ্টি হলে লোকশানের মুখে পড়তে হবে। 

এছাড়া করোনার সংক্রমণ বিস্তার রোধে ২ সপ্তাহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করায় সাধারণের যাতায়াত কমেছে অনেক। ফলে আয়ের উৎস থেকে পিছিয়ে পড়েছে অলি গলিতে পথচারিদের গন্তব্যে পৌঁছে দেয়া ছোট যানবাহনের চালকশ্রেণির ঘাম ঝড়ানো মানুষেরা। এদের অনেকেই আবার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাসিক বেতনে রিকশা যোগে বহন করতেন। 

এমনি একজন পৌর শহরের রিকশা চালক কালাম শিকদার বলেন, পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে স্কুলে আনা নেয়ার জন্য মাসিক চুক্তিবদ্ধ ছিলাম। এখন করোনার কারণে অভিভাবকরা ফোন দিয়ে নিষেধ করেছে। তাছাড়া প্রচন্ড শীতে বেশিক্ষণ রিকশা চালানো যায় না। কষ্ট করে চলতে হয়। 

ক্ষেপুপাড়া আবহাওয়া অফিসের উচ্চ পর্যবেক্ষক মো. ফিরোজ জানান, রোববার সকাল পর্যন্ত এক মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া এদিন সর্বনিম্ন  তাপমাত্রা ছিলো ১৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আরো তিনদিন আবহাওয়া অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানান তিনি। 

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা