ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২৪/০১/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২০ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮০২৩, নতুন ৪৭৩ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫৩১৭৯৯ জন। নতুন ৫১৪ জন সহ মোট সুস্থ ৪৭৬৪১৩ জন। একদিনে ১৪১৬৯টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৩৫৫৫৫৫৮টি।
  • সোমবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১২ ১৪২৭

  • || ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
২৪ জানুয়ারি, ঐতিহাসিক গণ-অভ্যুত্থান দিবস ইতিহাস সৃষ্টি করলেন প্রধানমন্ত্রী, বাড়ি পেল ৭০হাজার গৃহহীন পরিবার সোমবার ঢাকায় আসছে ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন ২৭ জানুয়ারি করোনার প্রথম টিকা পাবেন কুর্মিটোলার নার্স কাপাসিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন ভূমিহীন ও গৃহহীনরা প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন ভালুকার ১৯৯ গৃহহীন পরিবার গাজীপুরের গাছা’য় বঙ্গবন্ধু কলেজের ভবন উদ্বোধন গণঅভ্যুত্থান দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ কালিয়াকৈরে গৃহহীন বিধবাকে গৃহ নির্মাণ করে দিল পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন শ্রীপুরের ২০ পরিবার বাংলাদেশকে করোনার টিকা উপহার দেবে চীনা প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ২৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে বার্জার পেইন্টস বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা যাবে মোবাইলে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী কালিয়াকৈরে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ভালুকায় নৌকা প্রার্থীর পক্ষে ব্যবসায়ী সমিতির মতবিনিময় সভা
৭২

যেভাবে কাজ করবে ‘সবার ঢাকা’ অ্যাপ

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

নাগরিক সমস্যা সমাধানে মোবাইল ফোন অ্যাপ্লিকেশন ‘সবার ঢাকা অ্যাপ’ নিয়ে এসেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। গত ১১ জানুয়ারি অ্যাপটি উন্মোচন করেছে কর্তৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এর মাধ্যমে সিটি করপোরেশন এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে। নাগরিকরা দ্রুত তাদের সমস্যার কথা জানাতে পারবেন এবং সমাধান পাবেন।

মোবাইল ফোনে ইন্সটল

যেকোনো অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে ইন্টারনেট সংযুক্ত করে ফোনের প্লে স্টোরে ‘Shobar Dhaka- Citizen portal for DNCC’ নামে সার্চ করলে অ্যাপটি পাওয়া যাবে। ১১ মেগাবাইটের অ্যাপটি ডাউনলোডের পর ভাষা নির্বাচন করে মোবাইল ফোনের নম্বর ভেরিফিকেশন করে নিতে হবে। তারপর ব্যবহারকারী তার নাম ও লোকেশন অ্যাকসেস দিয়ে অ্যাপটির মূল ইন্টারফেসে প্রবেশ করবেন।

যেভাবে কাজ করবে অ্যাপটি

অ্যাপটিতে রাস্তা, মশা, আবর্জনা, সড়ক বাতি, পাবলিক টয়লেট, নর্দমা, অবৈধ স্থাপনা নামে পৃথক বিভাগ থাকবে। ব্যবহারকারী যেকোনো বিভাগ নির্বাচন করে সে সম্পর্কিত সমস্যা ও পরামর্শ জানাতে পারবেন। যেমন, রাস্তা সংক্রান্ত কোনো সমস্যা বা পরামর্শ জানাতে ‘রাস্তা’ নামের বিভাগে ট্যাপ করলে একটি ফর্ম চলে আসবে।

সেখানে সংশ্লিষ্ট ছবি, ঠিকানা, সমস্যার ধরন ও বিস্তারিত লেখার অপশন থাকবে।

এগুলো ঠিকঠাক পূরণ করে দিলে সংশ্লিষ্ট এলাকার নির্বাহী প্রকৌশলী ও ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে তথ্য চলে যাবে। একইভাবে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, বর্জ্যের জন্য বর্জ্য কর্মকর্তা, অবৈধ স্থাপনার জন্য সম্পত্তি কর্মকর্তার কাছে এই অ্যাপের মাধ্যমে সমস্যা বা পরামর্শ জানানো যাবে।

নাগরিকরা অভিযোগ করার সঙ্গে সঙ্গে তা পৌঁছে যাবে সিটি করপোরেশনের কাছে। সে অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সরেজমিনে সমস্যাটি দেখে কতদিনে সমাধান সম্ভব তা ব্যবহারকারীকে জানাবেন। অভিযোগ পাওয়ার তিনদিনের মধ্যে সমাধানের সম্ভাব্য সময় জানানো হবে। আর জবাব জানাতে ব্যর্থ হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেটি জেনে যাবেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। আর সমাধান না পেলে সবশেষে বিষয়টি অভিযোগ হিসেবে চলে যাবে উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলামের কাছে।

আরও যা থাকছে

সমাধান কাউন্টারে ব্যবহারকারী তার দেয়া সমস্যা, নিষ্পন্ন সমস্যা ও প্রক্রিয়াধীন সমস্যার কথা জানাতে পারবেন।

জরুরি পরিষেবা

সরকারি সেবা সংস্থার বিভিন্ন কল সেন্টারের জরুরি নম্বর যেমন- সরকারি তথ্যের জন্য ৩৩৩, জরুরি সেবা ৯৯৯, দুদক ১০৬, দুর্যোগের আগাম বার্তার জন্য ১০৯০-সহ অন্যান্য পরিষেবার তথ্য পাওয়া যাবে এই অ্যাপে।

এছাড়াও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ঘোষণা, ব্রেকিং নিউজ, সিটি করপোরেশনের সেবা সংক্রান্ত যেকোনো বিজ্ঞপ্তি থাকবে এর স্কলার বিভাগে।

রাজধানীর বিভিন্ন চলমান অনুষ্ঠান ও আবহাওয়ার পূর্বাভাস থাকবে ‘আজকের ঢাকা’ বিভাগে।

নিকটবর্তী সেবার আওতায় পার্কিং, গ্যাস স্টেশন, পাবলিক টয়লেট, হাসপাতাল, এটিএম, পার্ক ও পুলিশ স্টেশনসহ জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা, অবস্থান এবং যাওয়ার পদ্ধতিও উল্লেখ করা আছে।

পাশাপাশি, অ্যাপটিতে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তপাঠ এবং চিকিৎসাসেবার অপশনও থাকছে।

এ প্রসঙ্গে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘সবার ঢাকা’ একটি অসাধারণ ডাইনামিক অ্যাপ্লিকেশন। যার মাধ্যমে নাগরিক সেবা সম্পর্কিত যেকোনো অভিযোগ পাঠাতে পারবেন সিটি করপোরেশনকে। অভিযোগ পেয়ে গুগল ম্যাপে লোকেশন ট্র্যাক করে, একেবারে পিন পয়েন্ট করে, সেখানে গিয়ে সমস্যার সমাধান করবে করপোরেশন কর্মকর্তারা।

ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘নগরবাসীর কাছে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে সবার ঢাকা অ্যাপের বন্দোবস্ত করেছি। এর মাধ্যমে সিটি করপোরেশন কর্মচারী ও জনগণের মধ্যে সংযোগ স্থাপন হবে এবং সবার জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে।’

গাজীপুর কথা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর