ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ০৫/জুলাই/২০২০ : করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৫ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০৫২, নতুন ২৭৩৮ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৬২৪১৭, মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭২৬২৫ জন, একদিনে ১৩৯৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা।
  • সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
ডোনাল্ড ট্রাম্পকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কাউন্সিল গঠন চামড়াশিল্প রক্ষায় আসছে একগুচ্ছ প্রণোদনা ৭ জুলাইয়ের মধ্যে ঢাবিতে পুরোদমে অনলাইন ক্লাস ত্রাণ পেয়েছে ৭ কোটি ৩৫ লাখ মানুষ চলতি মাসেই জুনের বেতন পাবেন রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভার ৩টি ওয়ার্ডের লকডাউন প্রত্যাহার অনলাইনে পশুর হাটের উদ্যোগ গাজীপুর জেলা প্রশাসনের শ্রীপুরে মুজিববর্ষ উপলক্ষে নেতাকর্মীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ
৮৯

মনে না থাকা রোগের সমাধান করুন অ্যাপ দিয়ে

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২০  

মন আছে বলেই তো কোন কিছু মনে না থাকার ঘটনা ঘটে। ভুলো মনের ঔষধ সেভাবে না থাকলেও প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে এই সমস্যা থেকে অনেকখানিই রেহাই পাওয়া যায়।

বি জেড রিমাইন্ডার:

বি-জেড অ্যাপের সুবিধা হল, দিন-সময়ের ভিত্তিতে অ্যাপের মধ্যেই বিভিন্ন অপশন ভাগ করে দেওয়া আছে। যে বিষয়ে রিমাইন্ডার সেট করতে চান, সেটা সিলেক্ট করে কনফার্ম করে দিলেই নির্দিষ্ট সময়ে আপনাকে ভয়েস মেসেজের মাধ্যমে মনে করিয়ে দেবে।

এভারনোট:

রিমাইন্ডার অ্যাপের চেয়ে 'নোট' অ্যাপ হিসেবেই এভারনোটের জনপ্রিয়তা বেশি। নোট নেওয়ার সুবিধার কারণে খুব সহজে একজন ব্যবহারকারী তার প্রয়োজনীয় কাজের নোট রাখতে পারবেন। তবে এভারনোট ফ্রি নয়। একবছরের জন্য সাবস্ক্রিপশন নিয়ে যতখুশি ব্যবহার করা যাবে।

এনি.ডু

এই অ্যাপ ফোনে ইনস্টল করলে সোজা কথায়, এক ঢিলে তিন পাখি মারা যায় । কোনও কিছু রিমাইন্ডার হিসেবে সেট তো করতে পারবেনই, সঙ্গে আপনার ফোনে যাদের নম্বর সেভ করা রয়েছে তাঁদের সঙ্গে চ্যাটও করতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। এছাড়াও পারিবারিক কোনও অনুষ্ঠানে বন্ধুদের ই-ইনভিটেশনও পাঠাতে পারবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে। একসঙ্গে অনেক সুবিধার কারণেই এনি.ডু অ্যাপ তরুণ প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয়। ব্লু-টুথ চালু করে এই অ্যাপের মাধ্যমে যে কোনও দু’টি ইলেকট্রনিক ডিভাইস সিঙ্কও করে নিতে পারবেন। ব্যবহার করা বেশ সহজ, তাই যে কোনও বয়সের মানুষ অনায়াসে ব্যবহার করতে পারবেন এই অ্যাপ।

জাস্ট রিমাইন্ডার

ফিচারের দিক থেকে আর পাঁচটা রিমাইন্ডার অ্যাপের চেয়ে এই অ্যাপের খুব একটা পার্থক্য রয়েছে, তা নয়, তবে এই অ্যাাপের সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হল নিরাপত্তা। অ্যাপে পাসওয়ার্ড সেট করে নিতে পারবেন। ফলে অ্যাপে কী কী বিষয়ে রিমাইন্ডার সেট করেছেন, সেটা ব্যবহারকারী ছাড়া আর কারও পক্ষে জানা সম্ভব হবে না। তাছাড়াও জাস্ট রিমাইন্ডারের ইন্টারফেস এবং বিভিন্ন ধরনের থিম সেট করার অপশনও এই অ্যাপের জনপ্রিয়তা অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে।

গুগল কিপ

বাজারে হাজারো রিমাইন্ডার অ্যাপের মধ্যে সবচেয়ে কার্যকরী সম্ভবত এটাই। অ্যাপ বিশারদরা এমনটাই মনে করেন। যেহেতু এটা গুগ্‌লের নিজস্ব অ্যাপ, তাই গুগ্‌ল ম্যাপে বা গুগল ইমেজে থাকা যে কোনও ছবি আপনি সহজেই সিলেক্ট করতে পারবেন। সঙ্গে সেই ছবি বা ম্যাপের উপর পয়েন্টিংও করতে পারবেন। পুরো ব্যাপারটাই হবে স্মার্টফোনের স্ক্রিনে আপনার আঙুলের আলতো ছোঁয়ায়। পাশাপাশি, চাইলে আপনার নেওয়া নোটগুলো রিমাইন্ডার হিসেবেও সেট করে নিতে পারবেন। অ্যাপের ইন্টারফেসও নিজের ইচ্ছে মতো বদল করে নিতে পারবেন।

গাজীপুর কথা
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর