ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম মারা গেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) দেশে এ পর্যন্ত ৪৫ লাখ ৩০ হাজার ৮২০ জন করোনা টিকা নেয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এরমধ্যে ৩৩ লাখ ৪১ হাজার ৫০৫ জন মানুষ টিকা গ্রহণ করেছেন। করোনা আপডেট বাংলাদেশ ০৩/০৩/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ০৫ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৪২৮, নতুন ৬১৪ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৯৩০ জন। নতুন ৯৩৬ জন সহ মোট সুস্থ ৪ লাখ ৯৯ হাজার ৬৩৭ জন। একদিনে ১৬ হাজার ৪১৪টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৪০ লাখ ৮৯ হাজার ৩৩৬টি।
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

  • || ২০ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
বাংলাদেশকে কেউ থামাতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সর্বশেষ জনপ্রিয় ঢাকায় পৌঁছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশকে এক কোটি ৯ লাখ ডোজ টিকা দেবে জাতিসংঘ সংগীতশিল্পী জানে আলম আলম আর নেই পঞ্চম দফায় ভাসানচর যাচ্ছে আরও ৩ হাজার রোহিঙ্গা ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন চালু হচ্ছে ২৬ মার্চ করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন ৪৫ লক্ষাধিক মানুষ

বিশ্ব রেকর্ড গড়ল তিন কোটির এই গরু

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

গরুটির নাম ‘পস স্পাইস’। বয়স মাত্র ১৪ মাস। এর দাম কতই বা হতে পারে। খুব বেশি হলে হাজারের ঘরে সীমাবদ্ধ থাকার কথা। কিন্তু তা হয়নি। বরং উল্টো বিশ্বকে চমকে দিয়েছে। বিশাল অংকের দাম নিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে বিক্রি হয়েছে গরুটি।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি ইংল্যান্ডে গরুটি নিলামে উঠলে ৩৬ লাখ ডলারে বিক্রি হয়, যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় তিন কোটি ৫ লাখ ৭০ হাজার। ম্যানচেস্টার ও কামব্রিয়ার কয়েকজন পশু ব্যবসায়ী যৌথ উদ্যোগে এই গরুটি কেনেন।

ব্রিটিশ লিমোসিন ক্যাটাল সোসাইটি জানিয়েছে, বর্তমানে গরুটি যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপে সবচেয়ে দামি প্রাণী হয়ে উঠেছে।

এই গরুর মালিক ভিক্টোরিয়া বেকহ্যামের একজন ভক্ত। তিনিই গরুটির নাম রাখেন ‘পস স্পাইস’। কারণ গায়িকা ভিক্টোরিয়া বেকহ্যাম প্রথমে ‘স্পাইস গার্লস’র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সে কারণেই গরুর নাম হয় ‘পস স্পাইস’।

গরুটির মায়ের নাম ছিল ‘জিঞ্জার স্পাইস’। ওই ব্যান্ডের অন্য এক গায়িকার নামে রাখা হয় এই নাম।

খামারের মালিক ক্রিস্টাইন উইলিয়ামস ১৯৮৯ সালে খামারটি তৈরি করেন। তিনি সিএনএনকে বলেন, ‘আমরা এখন এক খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। আমরা নিশ্চিত ছিলাম না যে গরুটিকে বিক্রি করতে পারবো কিনা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পেরেছি।’

এত দামে বিক্রি হওয়ার কারণ সম্পর্কে বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি গরুটি তার বংশ বিশেষত তার মায়ের কারণে এত ভালো দামে বিক্রি হয়েছে।’

গাজীপুর কথা