ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২০/০৯/২০২০: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৬ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯৩৯, নতুন ১৫৪৪ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩৪৮৯১৬ জন। নতুন ২১৭৯ জনসহ মোট সুস্থ ২৫৬৫৬৫ জন। একদিনে ১১৫৯১টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ১৮২১২৭০টি।
  • সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৬ ১৪২৭

  • || ০৩ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সকলেই আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছে : প্রধানমন্ত্রী অনলাইনে কেজিপ্রতি পেঁয়াজের দাম ৩৬ টাকা ৪০ উপজেলায় অ্যাপে আমন ধান কিনবে সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা এরদোয়ানের মহানগরের হায়দরাবাদ এলাকায় রমনী কুমার বিদ্যালয়ের ৬তলা ভিত স্থাপন গাজীপুরে ২৪ ঘন্টায় নতুন ৩ জন করোনায় আক্রান্ত গাজীপুরে আলাদা দু’টি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২, আহত ২ গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত গাজীপুর-ময়মনসিংহ মহাসড়ক সেজেছে বর্ণিল ফুলে ফুলে এলইডি বাতিতে আলোকিত হচ্ছে ডিএনসিসির সড়ক দেড় হাজার মেট্রিক টন ভারতীয় পেঁয়াজ এসেছে আইনমন্ত্রীর মহানুভবতায় বিক্রি করা সন্তান ফিরে পেলেন মা শিক্ষার্থী ঝরে পড়া রোধে আসছে নানা কর্মসূচি
৯০

বিলুপ্তির পথে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধূলা

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২০  

ওপেন টু বাইস্কোপ, ইচিং বিচিং চিচিং চা, প্রজাপ্রতি উড়ে যা, কানা মাছি বো বো, গোল্লা ছুট, মোরগ যুদ্ধ, কুঁতকুঁত ইত্যাদি যুগ যুগ ধরে গ্রাম বাংলার জনপ্রিয় খেলা ছিল। বর্তমানে ৯০ ভাগ শিশুরাই জানে না এসব খেলা সম্পর্কে। দুই পায়ের উপরে চার স্তরে পাখির মতো দুই ডানা (হাত) খুব সাবধানে লাফ দিয়ে একপাশ থেকে অপরপাশে পাড়ি দিতে হবে। হাতের সঙ্গে পা বাদলেই শেষ। হেরে যাবে উড়ন্ত পাখি এমন চিত্র এখন চোখে পড়া দায়। প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলেও খুঁজে পাওয়া মুশকিল।

আধুনিকতার স্পর্শ আর সভ্যতার ক্রমবিকাশে আজ হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী এসব খেলা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর টিভি সিরিয়ালের দিকে ঝুঁকে পড়ায় শিশুরা এ সব খেলা থেকে বঞ্চিত হয়ে পরছে দিন কে দিন। একইসঙ্গে এসব খেলাও বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। এক সময় বিদ্যালয় ছুটি দেওয়ার পর ছোট ছোট শিশুরা এসব খেলায় মেতে উঠতো। কিন্তু আজকাল মধ্যবয়সী থেকে শুরু করে প্রবীণরাও এসব খেলাধুলা না দেখতে পেয়ে ভুলতে বসেছে এ সব খেলা।

গোল্লাছুট, বৌছি, কানামাছি, সাতচারা, হাডুডু, নৌকাবাইচ, কুঁতকুঁত, দাড়িয়া বান্ধা এসব খেলার নাম শুনেনি এমন মানুষ কমই আছে। এসব বাংলার ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলা। এখন এসব খেলা গল্প হয়ে গেছে। ইচিং বিচিং, দাড়িয়াবান্দাসহ গ্রামীণ খেলাধুলা ছিল প্রতিভা বিকাশের অন্যতম মাধ্যম। এটা আমাদের আদি ক্রীড়া সংস্কৃতি, ঐতিহ্য। বর্তমানে গ্রামীণ খেলা বিলুপ্ত হতে হতে এসব খেলার অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়াই কঠিন। এসব খেলাখুলা শিশুর মানসিক বিকাশ ঘটায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর টিভির সিরিয়ালের দিকে শিশুরা ঝুঁকে পড়ায় ধীরে ধীরে হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী এসব খেলা।

গাজীপুর কথা