ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২৮/১০/২০২০: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮৬১, নতুন ১৪৯৩ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪০৩০৭৯ জন। নতুন ১৬১০ জনসহ মোট সুস্থ ৩১৯৭৩৩ জন। একদিনে ১৩৩৫৭ টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ২২৯৬৩২১ টি।
  • বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৭

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
বিল, হাওর-বাওর বাঁচিয়ে রাখার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ২৮ অক্টোবর, বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের ৪৯তম শাহাদাতবার্ষিকী বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় জাতিসংঘের জোরালো ভূমিকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশের ‘গ্লোব বায়োটেক’র তৈরি টিকা নিতে চায় নেপাল মুজিববর্ষ উপলক্ষে সংসদের বিশেষ অধিবেশন শুরু ৮ নভেম্বর বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের সঠিক ভাষণ খুঁজতে কমিটি গঠন গ্লোব বায়োটেকের ভ্যাকসিন তালিকাভুক্ত করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মুজিবনগরকে দৃষ্টিনন্দন করতে ৫৪০ কোটি টাকার প্রকল্প গুরুদাসপুরে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর পেল অসহায় পরিবার খাদ্যশস্য উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উদাহরণ দেশের সবচেয়ে বড় সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শিগগিরই কক্সবাজারের চেয়ে ১৮টি উন্নত সেবা ভাসানচরে মাথাপিছু জিডিপিতে ভারতকে ছাড়িয়েছে বাংলাদেশ পদ্মা সেতুর শেষ স্প্যানের ফিটিং সম্পন্ন বাংলাদেশ করোনার ৩ কোটি ভ্যাকসিন পাবে : স্বাস্থ্য সচিব বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নেবে ইতালি গাজীপুরে পূজা উদযাপনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন কাপাসিয়ায় অসহায় ও দুস্থ মহিলাদের মাঝে চাল বিতরণ করা হবে গাজীপুরে ২৪ ঘন্টায় নতুন ৮ জন করোনা আক্রান্ত বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ভালুকায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরন স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হলেন কালীগঞ্জের পাপ্পু
২৪

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অনন্য মূল্যায়ন

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২০  

এ এক অনন্য মূল্যায়ন। এ এক অসাধারণ মর্যাদায় অভিষিক্ত করা। সাত বছর ধরে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে কোমায় থাকা লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজার অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ গত ১২ অক্টোবর তাকে কর্নেলর্ যাংকে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে।

সেনাবাহিনীর ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সাত বছর ধরে কোমায় থাকা কর্মকর্তা দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজার চাকরির মেয়াদের শেষ দিনে তাকে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে কর্নেলর্ যাংকে উন্নীত করা হয়। পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে হাসপাতালের কক্ষেই সম্পন্ন হয় পদোন্নতির আনুষ্ঠানিকতা। বিধাতার ইচ্ছায় এই কর্মদক্ষ অফিসার কোমায় থাকলেও তার অবদানকে মূল্যায়ন করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বাংলাদেশের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের সাক্ষী বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এই কর্মকর্তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশেও পাঠিয়েছে। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার খুব একটা উন্নতি হয়নি।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চৌকষ কর্মকর্তা দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজা প্রায় ৩২ বছরের চাকরি জীবনে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে থাকা অবস্থায় বিশেষ অবদানের জন্য 'পিস মেডেল' অর্জন করেছেন। ছিলেন সেনাবাহিনীর একাধিক প্রশিক্ষণ স্কুলের রণকৌশল প্রশিক্ষক। দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে বইও লিখেছেন তিনি। সেনাবাহিনীর ইতিহাস এবং প্রখ্যাত কর্মকর্তাদের জীবনী ছাড়া নিজের পূর্বসূরি হাছন রাজাকে নিয়ে লিখেছেন তিনি।

অবসরের দিন স্বামীকে সম্মানিত করায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ারের স্ত্রী মোসলেহা মুনিরা রাজা বলেন, প্রমোশনের ঠিক একমাস আগে আমার স্বামী অসুস্থ হয়ে যান। আমাদের সবার মনে এক রকম আশা ছিল যে তার পদোন্নতি হওয়ার পরেই যেন তিনি অবসরে যান। আজ আমাদের সে আশা পূর্ণ হলো।

২০১৩ সালের মার্চ মাসে হার্ট অ্যাটাক করেছিলেন সেনাবাহিনীর এই তুখোড় অফিসার। তারপর থেকেই কোমায় চলে যান তিনি। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় তার অসুস্থতাকে বলা হয় 'হাইপোস্কিক স্কিমিক ইনজুরি টু ব্রেইন ইফেক্টস।' চিকিৎসকরা বলছেন, তার মস্তিষ্কের নিচের অংশ ভালো আছে, কিন্তু মস্তিষ্কের যে অংশ মানুষের চিন্তা-চেতনার সাথে জড়িত, ওই অংশের কোষগুলো সুস্থ হয়নি।

দেওয়ান মোহাম্মদ তাছাওয়ার রাজা ২৩ জুন ১৯৮৯ সালে সাঁজোয়া বাহিনীতে কমিশন পাওয়ার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। ২০১৩ সালে হার্ট অ্যাটাক করার আগে ছিলেন শিক্ষা পরিচালকের পদে।

গাজীপুর কথা
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর