ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম মারা গেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) দেশে এ পর্যন্ত ৪৫ লাখ ৩০ হাজার ৮২০ জন করোনা টিকা নেয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এরমধ্যে ৩৩ লাখ ৪১ হাজার ৫০৫ জন মানুষ টিকা গ্রহণ করেছেন। করোনা আপডেট বাংলাদেশ ০৩/০৩/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ০৫ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৪২৮, নতুন ৬১৪ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৯৩০ জন। নতুন ৯৩৬ জন সহ মোট সুস্থ ৪ লাখ ৯৯ হাজার ৬৩৭ জন। একদিনে ১৬ হাজার ৪১৪টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৪০ লাখ ৮৯ হাজার ৩৩৬টি।
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

  • || ২০ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
বাংলাদেশকে কেউ থামাতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সর্বশেষ জনপ্রিয় ঢাকায় পৌঁছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশকে এক কোটি ৯ লাখ ডোজ টিকা দেবে জাতিসংঘ সংগীতশিল্পী জানে আলম আলম আর নেই পঞ্চম দফায় ভাসানচর যাচ্ছে আরও ৩ হাজার রোহিঙ্গা ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন চালু হচ্ছে ২৬ মার্চ করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন ৪৫ লক্ষাধিক মানুষ

জয়দেবপুর জংশনে ট্রেনের যাত্রাবিরতি চান যাত্রীরা

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতি, ট্রেনের বগি বৃদ্ধি, জয়দেবপুর রেলক্রসিং-এ ওভার ব্রিজ নির্মাণসহ ১০ দফা দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে গাজীপুর প্যাসেঞ্জার কমিউনিটি।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে নগরীর প্রকৌশলী ভবনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
গাজীপুর প্যাসেঞ্জার কমিউনিটির উদ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি প্রকৌশলী মো. সামসুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রকৌশলী সামসুল হক জানান, করোনাকালীন সময়ে ‘অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প’ নামের একটি প্রকল্প চালু করে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। প্রকল্পটির মাধ্যমে রেলওয়ে পরিচালিত ট্রেনগুলোতে আসনবিহীন যাত্রী নিয়ন্ত্রণ করা হলেও বেসরকারি ট্রেনগুলো চলছে নিয়ন্ত্রণহীনভাবেই। এতে সীমাহীন কষ্টে পড়েছে গাজীপুর থেকে ঢাকায় যাতায়াতকারী যাত্রীরা।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিন বুদ্দিন, গাজীপুর প্যাসেঞ্জার কমিউনিটির সাধারণ সম্পাদক খালেদ মাহবুব মোর্শেদ, মো. সাখাওয়াৎ হোসেন খোকন প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, প্রায় ৭০ লাখ মানুষ গাজীপুর জেলা ও সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বসবাস করে। ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তরের সমান সংখ্যক যাত্রী এবং গুরুত্বপূর্ণ হওয়া সত্ত্বেও জয়দেবপুর জংশনে কোনো স্টপেজ দেয়া হচ্ছে না। যদিও স্বল্প দূরত্বের অনেক স্টেশনেরই স্টপেজ দেয়া হচ্ছে।

তারা আরও বলেন, গাজীপুরে ট্রেনের স্টপেজ না থাকা এবং চাহিদা অনুযায়ী টিকেটে না পাওয়ার কারণে গাজীপুরের যাত্রীদের এয়ারপোর্ট থেকে যাতায়াত করতে হয়। ফলে এয়ারপোর্ট-গাজীপুর পথে বাড়তি যাত্রী চাপ সৃষ্টি করছে।

গাজীপুর কথা