ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ১৪/০৪/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬৯ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯ হাজার ৯৮৭ জন, নতুন ৫ হাজার ১৮৫ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭ লাখ ৩ হাজার ১৭০ । জন। নতুন ৫ হাজার ৩৩৩ জন সহ মোট সুস্থ ৫ লাখ ৯১ হাজার ২৯৯ জন । একদিনে ২৪ হাজার ৮২৫টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৫০ লাখ ৯৫ হাজার ৬১৩ টি।
  • বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০৩ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
শুরু হলো পবিত্র মাহে রমজান আজ পহেলা বৈশাখ পবিত্র মাহে রমজানের মোবারকবাদ ও পহেলা বৈশাখের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নববর্ষ উপলক্ষে ই-পোস্টার প্রকাশ দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন রেকর্ড কঠোর লকডাউন: সরকারের ১৩ দফার বিধিনিষেধ

গাজীপুরে মাস্ক বিতরণ ও স্বাস্থ্যবিধি পর্যবেক্ষণ

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২১  

গাজীপুরের দুটি উপজেলায় স্বাস্থ্যবার্তার মাধ্যমে মানুষের আচরণগত পরিবর্তনে কাজ করছেন ব্র্যাকের কমিউনিটি কর্মীরা। ‌‘কমিউনিটি-বেজড কোভিড-১৯ রেসপন্স প্রজেক্ট’ শীর্ষক এই প্রকল্পে গাজীপুরের কালিগঞ্জ এবং কাপাসিয়া উপজেলায় নিজস্ব অর্থায়নে কাজ করছে ব্র্যাক। গাজীপুরের দুটি উপজেলায় মানুষকে সচেতন করার মাধ্যমে সংক্রমণহার কমানো এবং লক্ষণযুক্ত রোগীকে দ্রুত স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে পাঠানোর লক্ষ্যে কাজ করছে। বাজার, বাসস্ট্যান্ড, মসজিদ এবং সেলুন মূলত এই ৪টি স্থানে মানুষের আচরণ পর্যবেক্ষণ করেন কর্মীরা।

বাজারগুলোতে দেখা হয় সেখানে মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কি না, আলাদা প্রবেশ এবং বাহির পথ আছে কি না, পর্যাপ্ত হাত ধোয়ার ব্যবস্থা আছে কি না, বিক্রেতারা মাস্ক পরছেন কি না ইত্যাদি।

দুই উপজেলার বাসস্ট্যান্ডগুলোতে যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব মানার প্রবণতা, হাত ধোয়ার ব্যবস্থা এবং মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি বাসে ডিসইনফেক্ট ব্যবহার হচ্ছে কি না তাও লক্ষ্য করা হয়। মসজিদগুলোতে মানুষ মাস্ক পরছে কি না, নিজের জায়নামাজ নিয়ে আসছে কি না এবং দূরত্ব মানছে কি না তা খেয়াল করেন ব্র্যাকের কর্মীরা।

সেলুনে নাপিতরা মাস্ক পরছেন কি না, বসার ব্যবস্থায় তিন ফুট দূরত্ব আছে কি না এবং প্রবেশপথে সচেতনতামূলক স্টিকার আছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা হয়।

এ দুই উপজেলায় একহাজার ১৫৯ জন স্থানীয় অধিবাসী নিয়ে গঠিত হয়েছে ১৬০টি ‘কমিউনিটি করোনা প্রটেকশন কমিটি’। সমাজের নেতৃস্থানীয় ও প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গ এবং স্থানীয় সাধারণ অধিবাসী নিয়ে গঠিত এসব কমিটি মানুষকে সচেতনতামূলক বার্তা পৌঁছে দিচ্ছে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনার লক্ষণযুক্ত ব্যক্তি আছেন কি না তা দেখা এবং থাকলে তাদেরকে করণীয় বলে দেন কমিটির সদস্যরা।

গাজীপুরেই ব্র্যাকের কমিউনিটি দল গত মাস পর্যন্ত (মার্চ, ২০২১) মোট তিন হাজার ৮১২ জন ব্যক্তিকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে, যার মাধ্যমে পরে এক হাজার ৭৫৬ জন করোনা রোগী হিসেবে শনাক্ত হন। তাদের প্রত্যেককেই টেলিমেডিসিন সেবা প্রদান করা হয়েছে এবং তাদের বাসায় বিভিন্ন সুবিধা পৌছে দেয়া হয়েছে।

জনসচেতনতার অংশ হিসেবে এখন পর্যন্ত দুই ধাপে এই টিমগুলো ৭৮ হাজার মাস্ক বিতরণ করেছে, যা ওইসব এলাকার ৬০ শতাংশ পরিবারের চাহিদা মেটাতে সক্ষম। এছাড়া এলাকাগুলোতে মাইকিং এবং বিভিন্ন জনসচেতনতামূলক উপকরণ বিতরণ করছে ব্র্যাক।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা