ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২৪/০১/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২০ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮০২৩, নতুন ৪৭৩ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫৩১৭৯৯ জন। নতুন ৫১৪ জন সহ মোট সুস্থ ৪৭৬৪১৩ জন। একদিনে ১৪১৬৯টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৩৫৫৫৫৫৮টি।
  • সোমবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১২ ১৪২৭

  • || ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
২৪ জানুয়ারি, ঐতিহাসিক গণ-অভ্যুত্থান দিবস ইতিহাস সৃষ্টি করলেন প্রধানমন্ত্রী, বাড়ি পেল ৭০হাজার গৃহহীন পরিবার সোমবার ঢাকায় আসছে ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন ২৭ জানুয়ারি করোনার প্রথম টিকা পাবেন কুর্মিটোলার নার্স কাপাসিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন ভূমিহীন ও গৃহহীনরা প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন ভালুকার ১৯৯ গৃহহীন পরিবার গাজীপুরের গাছা’য় বঙ্গবন্ধু কলেজের ভবন উদ্বোধন গণঅভ্যুত্থান দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ কালিয়াকৈরে গৃহহীন বিধবাকে গৃহ নির্মাণ করে দিল পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলেন শ্রীপুরের ২০ পরিবার বাংলাদেশকে করোনার টিকা উপহার দেবে চীনা প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ২৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে বার্জার পেইন্টস বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা যাবে মোবাইলে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী কালিয়াকৈরে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ভালুকায় নৌকা প্রার্থীর পক্ষে ব্যবসায়ী সমিতির মতবিনিময় সভা
২২৩

গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে দেখা মিলল শত শত আবাবিল পাখির

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ৩ জানুয়ারি ২০২১  

গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে শত শত ধূসর আবাবিল পাখি হঠাৎ করেই আশ্রয় নিয়েছে। পার্কে এদের আগমন এবারই প্রথম। এর আগে কখনো এ পাখি সাফারি পার্কে দেখা যায়নি। হঠাৎ করেই সম্প্রতি এরা পার্কের বিশেষ করে নির্জন স্থানগুলোয় দল বেঁধে আশ্রয় নিয়েছে।

পাখিগুলো দেখতে ত্রিকোণাকৃতি রুপালি ঠোঁট। শরীরজুড়ে ধূসর পালক। কাজল কালির টান চোখের কোণে। বুক থেকে নিচের দিকটা গোলাপি-ধূসর। লেজের ডগা সাদা। কালচে রঙের পা। নিতম্বের ওপর অর্ধচন্দ্রাকার সাদা বলয়। 

সরেজমিনে দেখা যায়, বিদ্যুতের তারে বসে একঝাঁক ধূসর আবাবিল রোদ পোহাচ্ছে। কর্কশ কণ্ঠে ডাকাডাকি করছে। ধূসর আবাবিলের সুর মোটেও শ্রুতিমধুর নয়।

বন্যপ্রাণী বিশারদ ও সাহিত্যিক আলম শাইন বলেন, বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, লাওস, মালয়েশিয়া ও চীন পর্যন্ত এদের দেখা যায়। বিশেষ করে রাস্তার পাশে বিদ্যুতের তারে দল বেঁধে বসে থাকে এ পাখি। রাতও কাটায় দল বেঁধে। শরীরের সঙ্গে শরীর ঘেঁষে রাত কাটায় এরা। তিনি বলেন, এরা সাধারণত উড়ন্ত পোকামাকড় ও ফড়িং খায়।

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের সহকারী বনসংরক্ষক তবিবুর রহমান বলেন, বিশাল পার্কের বিভিন্ন জায়গায় এদের দেখা মিলছে। এর আগে এ পার্কে কখনও ধূসর আবাবিল দেখা যায়নি। পার্কের জন্য এটা তাই একটা বাড়তি আকর্ষণ। পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে এরা হয়তো পার্কেই স্থায়ী হয়ে যাবে।

গাজীপুর কথা
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর