ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২২/০৬/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৭৬ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৭০২ জন, নতুন ৪৮৪৬ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৮৬১১৫০ জন। নতুন ২৯০৩ জন সহ মোট সুস্থ ৭৮৮৩৮৫ জন । একদিনে ২৫০২৮ টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৬৩৭৬৮১৯।
  • বুধবার   ২৩ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
টিকা তৈরিতে সক্ষম দেশগুলোর বৈশ্বিক সহযোগিতা দরকার: প্রধানমন্ত্রী সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন রাজধানী ঢাকা এডিবি ২৫ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বাংলাদেশকে ‘জুলাই থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ২০ হাজার টাকা করে সম্মানী ভাতা’ গাজীপুরের প্রবেশমুখ গুলোতে পুলিশের কড়াকড়ি,ঢাকা প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা সব রেকর্ড ছাড়িয়ে রিজার্ভ ৪৫.৪৬ বিলিয়ন ডলার

গাজীপুরের মাওনায় সন্ধান মিলল সেই ভাইরাল ‘কাকলী ফার্ণিচার’

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২১  

‘দামে কম মানে ভালো’ স্লোগান এখন মাতিয়ে রেখেছে ওপার বাংলা। স্লোগানটি বাংলাদেশের কাকলী ফার্নিচারের। গাজীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় সন্ধান মিলল প্রতিষ্ঠানটির প্রধান শোরুমের। নেটিজেনদের কল্যাণে ভাইরাল হওয়া এই ফার্নিচার ব্যবসার দেখাশোনা করেন এস এম সোহেল রানা ও তার বোনজামাই আমান উল্লাহ। বাবা হাজী আবুল কাশেমের হাত ধরে এ ব্যবসার হাল ধরেন তারা।

ঢাকা-কলকাতায় ভাইরাল হওয়া কাকলী ফার্নিচারের বিজ্ঞাপনি সাড়ায় যারপরনাই উচ্ছ্বসিত তারা। শনিবার (২২ মে) প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে আবুল কাশেম ও সোহেল রানা জানালেন কাকলী ফার্নিচারের গল্প।

ছিল কাঠের ছোট দোকান
হাজী আবুল কাশেম জানান, তিনি অন্তত ২০ বছর ধরে কাঠমিস্ত্রির কাজ করছেন। বাড়িতে ছোটখাটো কারখানা আছে। বছর দশেক আগে বাড়ির পাশে মাওনা চৌরাস্তায় কাকলী ফার্নিচার নামে একটি শোরুম দেন।

আবুল কাশেম বলেন, ‘আমি কৃষক মানুষ। বাড়িতেই থাকি। কাঠের ব্যবসা করি বেশ কয়েক বছর। আমার এক ছেলে সোহেল রানা ও এক মেয়ে কাকলী। তার নামেই এ ব্যবসা।’

শুক্রবার (২১ মে) দিল্লি প্রতিনিধি রঞ্জন বসু তার প্রতিবেদনে জানিয়েছেন, বিনোদন জগতের তারকা থেকে সাধারণ মানুষ, সবাই কাকলী ফার্নিচার নিয়ে টিকাটিপ্পনি বা পোস্ট করতে পিছিয়ে নেই। 'দামে কম, মানে ভালো'- এই যে স্লোগানটি কাকলী ফার্নিচারের বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত হয়েছে সেটিও এখন পশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে!

ঢাকা-কলকাতায় ভাইরাল কাকলী ফার্নিচারের নাম ছড়িয়ে পড়ায় আনন্দিত আবুল কাশেম। বললেন, ‘আমি তো শুনছি। ইন্টারনেটে মানুষরা এটা নিয়ে কথা বলছে। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানাই।’

সোহেল রানা পেশায় একজন সাংবাদিক। মাইটিভির প্রতিনিধি হিসেবে গাজীপুর জেলায় কাজ করছেন। জানালেন, ‘তিনটি শোরুম আছে আমাদের। মাওনা চৌরাস্তায় প্রধান শোরুম, দ্বিতীয়টি ময়মনসিংহের ভালুকায়। তিন নম্বরটি ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ধোপাখোলায়। এর বাইরে নেই।’

দশ বছর আগে থেকেই ‘দামে কম মানে ভালো’ স্লোগানটি বিজ্ঞাপন হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে বলে জানান সোহেল রানা। তিনি বলেন, ‘আমরা পারিবারিকভাবে স্লোগানটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’ ভাইরাল হওয়ায় বিজ্ঞাপনগুলো সোহেল রানার বানানো বলে জানান তিনি।

সোহেল রানা বলেন, ‘আমি নগণ্য ব্যক্তি। অভাবগ্রস্ত পরিবারের ছেলে ছিলাম। এ জন্য বিজ্ঞাপনটা কোনওমতে বানানো। অবশ্য সব ত্রুটিই খারাপ নয়। ত্রুটির কারণেই তো আজ ওটা ভাইরাল হলো।’

ভাইরাল হওয়ার পর থেকে বিক্রি বেড়েছে বলে জানালেন সোহেল রানা। তিনি বলেন, ‘নেটিজেনদের কারণেই ভাগ্য খুলছে। তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।’ আগামী দিনে বিক্রি আরও বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন সোহেল রানা।

কলকাতায় শোরুম?
সোহেল রানা জানান, সরকারের সহযোগিতা পেলে দেশের বাইরেও কাকলী ফার্নিচারের শোরুম খোলার ইচ্ছে আছে তাদের। বিশেষ করে কলকাতায়। তিনি বলেন, ‘দামে কম মানে ভালো’ স্লোগান এখন জনপ্রিয়। তাই প্রতিষ্ঠানের পরিসর বড় করার সুযোগ আছে তাদের। দরকার শুধু সহযোগিতা। টাকা হলে সবার আগে কলকাতাতেই শোরুম খোলা হবে বলে জানান সোহেল।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা