ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ১৭/০৪/২০২১: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১০১ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০ হাজার ২৮৩ জন, নতুন ৩ হাজার ৪৭৩ জন সহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭ লাখ ১৫ হাজার ২৫২ জন। নতুন ৫ হাজার ৯০৭ জন সহ মোট সুস্থ ৬ লাখ ৮ হাজার ৮১৫ জন । একদিনে ১৬ হাজার ১৮৫টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ৫১ লাখ ৫০ হাজার ৬৬৩ টি।
  • রোববার   ১৮ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৫ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা কিংবদন্তী অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ। ১৭ এপ্রিল মুজিব নগর দিবস, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের সুদীর্ঘ ইতিহাসের এক চির ভাস্বর অবিস্মরণীয় দিন দেশ গঠনে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করুন: রাষ্ট্রপতি মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ই-পোস্টার প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাবে ৩৬ লাখ পরিবার ১৭ এপ্রিল থেকে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ ফ্লাইট করোনা রোগীর সহায়তায় বিমান বাহিনীর জরুরি সেবা করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ দরিদ্র পরিবারকে ২৫০০ টাকা দেয়ার উদ্যোগ করোনামুক্ত হওয়ার ২৮ দিন পর টিকা নেওয়া যাবে

‘করোনা টিকার এন্টিবডি তৈরিতে সময় লাগে ১৪ থেকে ২১ দিন’

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

টিকা নেয়ার পরও মানুষ করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। কিন্তু এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ টিকা নেওয়ার পর কেউ করোনা আক্রান্ত হলে সেই সংক্রমণ হবে মৃদু। তার মৃত্যুঝুঁকিও থাকবে কম। অর্থাৎ টিকা মৃত্যুঝুঁকি কমানোর পাশাপাশি মারাত্মক সংক্রমণ থেকেও রক্ষা করবে। টিকা নেয়ার পর এন্টিবডি তৈরি হতে ১৪ থেকে ২১ দিন সময় লাগতে পারে। এর আগে কেউ আক্রান্ত হতেও পারেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম জনসাধারণকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, শরীরে করোনা সংক্রমিত হওয়ার পর কেউ টিকা নিলে সে ক্ষেত্রে তা কাজ নাও করতে পারে। কারণ করোনাভাইরাসের জীবাণু শরীরে প্রবেশের পর সেটির ক্রান্তিকাল ন্যূনতম ১৫ দিন। তার আগেই একজন আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন।

ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার পর করোনায় আক্রান্তের আশঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে। কারণ তখন টিকা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে ফেলবে। কিন্তু নানা শারীরিক সমস্যা থাকলে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হলে ওই ব্যক্তি টিকা নেওয়ার পরও আক্রান্ত হতে পারেন। তবে এই সংখ্যা প্রতি ১০ হাজারে একজন হতে পারে বলে জানান তিনি।

করোনার জাতীয় টিকা বিতরণ সংক্রান্ত কোর কমিটির সদস্য ও আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আলমগীর বলেন, প্রতিষেধক টিকা করোনা থেকে সুরক্ষিত থাকার একমাত্র উপায় নয়। এটি একটি মাত্র উপায়। টিকা নিয়ে কেউ স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে কিংবা যথাযথভাবে মাস্ক ব্যবহার না করলে তাদের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকবে। কারণ টিকা নিলে কেউ করোনায় আক্রান্ত হবেন না- এমন কোনো নিশ্চয়তা বিজ্ঞানীরা দেননি। টিকা নেওয়ার পরও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং মাস্ক ব্যবহার করতে হবে বলে জানান তিনি।

গাজীপুর কথা
গাজীপুর কথা