ব্রেকিং:
করোনা আপডেট বাংলাদেশ ২৮/১০/২০২০: করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩ জনের মৃত্যু এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৮৬১, নতুন ১৪৯৩ জনসহ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪০৩০৭৯ জন। নতুন ১৬১০ জনসহ মোট সুস্থ ৩১৯৭৩৩ জন। একদিনে ১৩৩৫৭ টি সহ মোট নমুনা পরীক্ষা ২২৯৬৩২১ টি।
  • বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৭

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনায় সশস্ত্রবাহিনী দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী ধর্ম নিয়ে কটুক্তি, নোবিপ্রবির ২ শিক্ষার্থী বহিষ্কার শিগগিরই ঢাকায় আসছেন এরদোয়ান কুমিল্লায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ভালুকায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের ৮ একর বনভূমি উদ্ধার ১ নভেম্বর থেকে খুলে দেয়া হচ্ছে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক কালিয়াকৈরে বিষধর সাপের কামড়ে এক নারীর মৃত্যু
৭৩

অপহরণের পর শিশুকে হত্যা করায় যুবকের ফাঁসি

গাজীপুর কথা

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০২০  

নারায়ণগঞ্জে শিশু আকিব হোসেনকে (৫) অপহরণের পর হত্যা মামলার রায়ে রতন (২৬) নামের এক যুবকের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার (০৭ অক্টোবর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ শাহিন উদ্দিন এ রায় দেন। এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন রতন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মো. রতন কুমিল্লার মেঘনা থানার মির্জানগর এলাকার মৃত জজ মিয়ার ছেলে। তিনি নারায়ণগঞ্জে বন্দর উপজেলার একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার রাজ্জাক মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৩ নভেম্বর বিকেলে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার ট্রলারচালক জামাল হোসেনের ছেলে আকিব হোসেন বাড়ির সামনে থেকে নিখোঁজ হয়।

ওই দিন সন্ধ্যায় আকিবের বাবা জামালের মোবাইলে কল আসে। কল রিসিভ করে তিনি জানতে পারেন আকিবকে অপহরণ করা হয়েছে। মুক্তিপণ হিসেবে ২০ হাজার টাকা দাবি করা হয়। টাকা দিলে আকিবকে ফেরত দেবে বলা হয়।

টাকা না দিলে আকিবকে হত্যা করবে বলে জানান অপহরণকারী। এরই মধ্যে আকিবের পরিবার জানতে পারে অপহরণকারী একই এলাকার প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া রতন। বিষয়টি র‌্যাবকে জানানো হয়। এরপর ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর এলাকা থেকে রতনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১। তবে গ্রেফতারের আগেই আকিবকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় শিশুটির বাবা জামাল হোসেন বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন রতন। ঘটনা তদন্ত শেষে রতনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি রকিব উদ্দিন বলেন, মামলার রায়ে রতনকে অপহরণের একটি ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত; একই সঙ্গে মুক্তিপণ দাবির আরেক ধারায় মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আকিবকে হত্যার দায়ে আরেকটি ধারায় রতনকে আরেকবার মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানার অর্থ আদায় করে বাদীকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এই রায় দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন আদালত। যাতে অদূর ভবিষ্যতে কোনো শিশুকে অপহরণের পর হত্যার দুঃসাহস কেউ না দেখায়।

রায়ের পর আদালপাড়ায় উপস্থিত শিশু আকিবের বাবা জামাল হোসেন ও মা রুমা বেগম সন্তান হত্যার রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

জামাল হোসেন বলেন, আকিবের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। রায় যেন দ্রুত কার্যকর হয়। আসামির ফাঁসি দিয়ে দেশবাসীকে জানিয়ে দেক অপরাধ করে কেউ পার পায় না। আমার মতো কোনো বাবার বুক যেন খালি না হয়।

গাজীপুর কথা
অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর